আগে নির্বাচন বাতিল, পরে ঐক্যের আলোচনা: জেএসডি

নিজস্ব প্রতিবেদক, পিটিবিনউজ.কম
আগে একাদশ সংসদ নির্বাচন বাতিল করে নতুনভাবে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের সংলাপ; তারপরই সরকারের সঙ্গে জাতীয় ঐক্যের প্রশ্নে আলোচনা হতে পারে বলে জানিয়েছে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি। সুষ্ঠু নির্বাচনের আলোচনা ছাড়া অন্যান্য বিষয়ে আলোচনা হবে অবৈধ নির্বাচনকে বৈধতা প্রদানের সামিল বলে মনে করে দলটি।

আজ শনিবার রাজধানীর উত্তরায় জেএসডি সভাপতির বাসভবনে অনুষ্ঠিত দলের স্টিয়ারিং কমিটির এক প্রস্তাবে এসব কথা বলা হয়।

দলটির নেতারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনী বিপর্যয়ের অনেক কারণ উল্লেখ করেছেন। কিন্তু নির্বাচনে বিরোধী দলীয় প্রার্থীদের মিছিল-মিটিং-প্রচারণায় বাধাদান, পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা, হাজার হাজার কর্মীর ওপর হামলা ও গ্রেপ্তার, বাড়ি-বাড়ি ঢুকে তল্লাশির নামে আতঙ্কের সৃষ্টি, গ্রেপ্তারের হুমকি, পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে না যেতে হুমকি প্রদান, কেন্দ্র থেকে জোরপূর্বক বের করে দেয়া হয়েছে।

নেতারা বলেন, ভোটের আগের রাতে এবং ভোটের দিন প্রশাসন-আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ দলীয় মাস্তানদের সহযোগিতায় বিরোধী দলের এজেন্ট, নেতাকর্মীদের বের করে দিয়ে সিল মেরে বাক্স ভর্তি করা, এজেন্ট অনুপস্থিতির সুযোগে বিরোধী প্রার্থীর ভোট কমিয়ে আনার মাধ্যমে যে নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে, তা জেএসডি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টসহ যারা নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন সেইসব বিরোধী দলগুলো প্রত্যাখান করেছে।

স্টিয়ারিং কমিটির সভায় বক্তব্য দেন- জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, সহ-সভাপতি তানিয়া রব, শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন, এস এম আনসার উদ্দিন প্রমুখ।