‘আমি তোমাদেরই লোক, কিছু সময়ের জন্য ভারতে ছিলাম’

ছবি : সংগৃহীত।

পাবনা সংবাদদাতা, পিটিবিনিউজ.কম
গত ২১ জানুয়ারি কলকাতা থেকে ঢাকায় এসেছেন এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অঞ্জু ঘোষ। পরিচালক সাঈদুর রহমান সাঈদের ‘মধুর ক্যান্টিন’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য তার এই সফর। এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে পাবনার উদ্দেশে রওনা হন। সেখানে রাত ৭ টায় পৌঁছান অঞ্জু।

পাবনায় শ্রী শ্রী অনুকূল ঠাকুরের আশ্রমে রয়েছেন ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ খ্যাত নায়িকা। সেখানে আজ শুক্রবার সকালে অঞ্জু ঘোষ বলেন, মাতৃভূমিতে ফিরে ঠাকুরে আশ্রমে এসে চারদিকে শুধু মাকেই দেখতে পাচ্ছি। সবার ভালোবাসায় আজ আমি অঞ্জু ঘোষ হতে পেরেছি।

উপস্থিত সবার উদ্দেশে তিনি বলেন, আমি তোমাদেরই লোক। কিছু সময়ের জন্য ভারতে ছিলাম। ছোট বেলা থেকেই আমি ঠাকুরের শীর্ষ।

আজ অঞ্জু ঘোষ পাবনায় শ্রী শ্রী ঠাকুরের আশ্রম, পাবনা মানসিক হাসপাতাল ও মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের বাড়ি ঘুরে দেখেন। শনিবার সকালে ঢাকায় ফিরবেন এই অভিনেত্রী।

এদিকে আগামী ১ ফেব্রুয়ারি তার অভিনীত ‘মধুর ক্যান্টিন’ ছবির দ্বিতীয় লটের শুটিং শুরু হবে। এতে মধু দা’র স্ত্রী যোগমায়া চরিত্রে অভিনয় করবেন অঞ্জু ঘোষ। মধু দা’র চরিত্রে অভিনয় করছেন ওমর সানি। ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ পাকিস্তান সেনাবাহিনী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক-কর্মচারীদের ওপর নৃশংস হামলা চালায়। মধুর ক্যান্টিনের মধু দা’কে হত্যা করা হয়। তখনকার প্রেক্ষাপট নিয়েই ছবির গল্প। এছাড়া এই সিনেমাতে অতীতের সঙ্গে বর্তমানের মেলবন্ধন দেখানো হবে। ছবির প্রথম লটের শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন ওমর সানি, মৌসুমী, মহসীন পলাশ ও সোহানা সাবাসহ অনেকে।

২২ বছর পর ২০১৮ সালে দেশে এসেছিলেন অঞ্জু ঘোষ। অঞ্জুর প্রকৃত নাম অঞ্জলি। ১৯৭২ থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত চট্টগ্রামের মঞ্চনাটকে জনপ্রিয়তার সঙ্গে অভিনয় করেন তিনি। ১৯৮২ সালে ফোক-ফ্যান্টাসি চলচ্চিত্র নির্মাতা এফ কবির চৌধুরী চলচ্চিত্রে আনেন তাকে। অঞ্জুকে নিয়ে তৈরি করেন ‘সওদাগর’ ছবি। এরপর ১৯৮৯ সালে ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ চলচ্চিত্র তাকে এনে দেয় রাতারাতি জনপ্রিয়তা। ঢালিউডে প্রায় ৫০টি ছবির অভিনেত্রী তিনি। ১৯৯৬ সালে দেশ ছাড়েন অঞ্জু। তখন থেকেই কলকাতায় বসবাস করছেন এই নায়িকা। কলকাতায় বেশকিছু চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন তিনি।