রাজশাহীকে হারিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ চিটাগং

ফাইল ছবি

স্পোর্টস ডেস্ক, পিটিবিনিউজ.কম
বিপিএলে আজকের দিনের প্রথম ম্যাচে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে ৬ উইকেটের জয় পেয়েছে চিটাগং ভাইকিংস। এই জয়ের মধ্যে দিয়ে এবার বিপিএলে প্রথমবারের মতো পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ স্থান দখল করলো মুশফিকুর রহিমের চিটাগং ভাইকিংস।

বিপিএল ষষ্ঠ আসরের গ্রুপ পর্বের তিন ভাগের দুই ভাগ ম্যাচ খেলা শেষ হয়েছে প্রায় সব দলেরই। অনন্য দলের চেয়ে কম ম্যাচ খেলে এখন পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে চিটাগং। সাত ম্যাচ মাঠে নেমে ছয়টিতে জয় পেয়েছে তারা। বাকি পাঁচ ম্যাচের একটিতে জিততে পারলে প্লে অফ নিয়ে শঙ্কা থাকবে না তাদের। তাই চিটাগং যে প্লে অফে এক পা দিয়ে রেখেছে একথা এখন বলাই যায়।

অথচ এই চিটাগং এবারের বিপিএলে খেলতে চাইনি। চিটাগং এখন পর্যন্ত তাদের খেলা সাত ম্যাচের মধ্যে আসরে তাদের দ্বিতীয় ম্যাচে সিলেটের বিপক্ষে এক ম্যাচে হেরেছে। তাও মোটে পাঁচ রানে।

আজ বুধবার দিনের প্রথম খেলায় চিটাগংয়ের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৫৭ রান তোলে রাজশাহী কিংস। মেহেদি মিরাজের দলের হয়ে এ ম্যাচেও দারুণ এক ইনিংস খেলেন আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি পাওয়া লাউরি ইভান্স। তিনি এ ম্যাচে খেলেন ৭৪ রানের ইনিংস। এছাড়া ক্রিস্টিয়ান ঝংকার করেন ৩৬ রান। স্থানীয় তারকাদের কারোরই ব্যাট হাসেনি এ ম্যাচে।

জবাবে ব্যাট করতে নামা চিটাগংকে শুরুতে চাপে ফেলে দেয় রাজশাহী। তাদের ৩০ রানের মধ্যে তুলে নেয় ৩ উইকেট। সেখান থেকে মুশফিক এবং নাজিবুল্লাহ জাদরান ভালো একটা জুটি গড়েন। এরপর জাদরান ফিরে গেলে মোসাদ্দেক ক্রিজে আসেন। রাজশাহীর জন্য টানিং উইকেট ছিলো এটি। কিন্তু মুসাদ্দেক মুশফিকের ওই জুটি আর ভাঙতে পারেনি রাজশাহী। তারা ৮৮ রানের অবিচ্ছেদ্য জুটি গড়ে ম্যাচ বের করে ফেরেন।

চিটাগংয়ের হয়ে এ ম্যাচে ৪৬ বলে ৬৪ রান করেন মুশফিক। দুটি ছক্কা এবং ছয়টি চার মারেন তিনি। মোসাদ্দেক করেন ২৬ বলে ৪৩ রান। তিনি দুটি ছক্কার পাশাপাশি তিনটি চার মারেন। রাজশাহীর হয়ে আরাফাত সানি ৪ ওভার বল করে ২২ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন। চিটাগংয়ের সেরা বোলার খালিদ আহমেদ ৪ ওভারে ৩০ রান খরচ করে ২ উইকেট নেন।