ইন্দোনেশিয়ায় আবারো ৬.৬ মাত্রার ভূমিকম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, পিটিবিনউজ.কম
আবারো ইন্দোনেশিয়ায় ৬ মাত্রার উপরে পরপর দুটি ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। দেশটির পশ্চিম নুসা তাঙ্গারা প্রদেশের সুমবাওয়া দ্বীপের উপকূলে ৬ দশমিক ১ এবং ৬ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প দুটি অনুভূত।

আজ মঙ্গলবার দ্বীপটির পূর্বাঞ্চলীয় রাবা শহরের ২৩০ কিলোমিটার দক্ষিণে ভূত্বকের ৩৬ কিলোমিটার গভীরে দ্বিতীয় ভূমিকম্পটির উৎপত্তি বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস), খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

এর আগে একই দিন একই এলাকায় ৬ দশমিক ১ মাত্রার আরেকটি শক্তিশালী ভূমিকম্প হয়। ভূমিকম্প দুটির পর তাৎক্ষণিকভাবে কোনো সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়নি এবং ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতেরও কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

ইউএসজিএস প্রথমে প্রথম ভূমিকম্পটির মাত্রা ৬ দশমিক ১ বলে জানিয়েছিলো। হাওয়াইভিত্তিক প্রশান্ত মহাসাগরীয় সুনামি সতর্কীকরণ কেন্দ্র ওই ভূমিকম্পের পর কোনো সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়নি বলে তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছিলো।

প্রশান্ত মহাসাগরের ভূমিকম্পপ্রবণ ‘আগ্নেয় মেখলা’ (রিং অব ফায়ার) অঞ্চলে অবস্থিত ইন্দোনেশিয়া একটি দুর্যোগপ্রবণ দ্বীপপুঞ্জ।

গত ২০১৮ সালের শেষ দিকে ধারাবাহিক ভূমিকম্প ও সুনামিতে দেশটিতে তিন হাজারেরও বেশি লোক নিহত হয়েছেন। বছরটির একেবারে শেষ দিকে জাভা দ্বীপের পশ্চিম উপকূলে এক সুনামিতে প্রায় ৪৩০ জন নিহত ও অন্তত ১৫৯ জন নিখোঁজ হন।

এই সুনামি ১৪ বছর আগে ২০০৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর সংঘটিত ভয়াবহ সুনামির স্মৃতি ফিরিয়ে আনে। ভারত মহাসাগরের ওই সুনামিতে উপকূলবর্তী ১৪টি দেশের দুই লাখ ২৬ হাজার লোক নিহত হয়েছিলো, তাদের মধ্যে ইন্দোনেশিয়ার লোক ছিলো এক লাখ ২০ হাজারেরও বেশি।