বিশ্বকাপে টাইগারদের দল ঘোষণা মঙ্গলবার

ফাইল ছবি।

স্পোর্টস ডেস্ক, পিটিবিনিউজ.কম
দরজায় কড়া নাড়ছে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ। ইতোমধ্যে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও ভারত তাদের বিশ্বকাপ দল ঘোষণা করেছে। বসে নেই বাংলাদেশও। কারা বিশ্বকাপে খেলতে যাবেন, সেই বিষয়ে কাটাছেঁড়া পর্ব মোটামুটি শেষ হয়েছে। এরই মধ্যে খবর মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দুপুর ১২টায় আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্বকাপ ও আসন্ন আয়ারল্যান্ড সফরের দল ঘোষণা করা হবে।

আজ সোমবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে যখন প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে একচেটিয়া প্রাধান্য বিস্তার করে জয়ের অপেক্ষায় আবাহনী লিমিটেড, তখন সবাইকে অবাক করে দিয়ে বিসিবি কার্যালয়ে হাজির ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

বিসিবি সভাপতির এমন অকস্মাৎ আগমনে শেরেবাংলায় গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে, আজই কি তবে চূড়ান্ত হয়ে যাবে বিশ্বকাপের দল? নাজমুল হাসান পাপন কি ঘোষণা করে দেবেন, কারা যাচ্ছেন ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ আর আয়ারল্যান্ডের ত্রিদেশীয় সিরিজে? তবে শেষ পর্যন্ত এমন কিছু হয়নি। তবে দল কবে ঘোষণা হবে, সেটি জানিয়ে দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি। মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা হবে বিশ্বকাপের দল। যে দলে ১৩ জনের জায়গা মোটামুটি নিশ্চিত, চমক হিসেবে কারা জায়গা করে নেন আর কারা বাদ পড়েন, সেটাই এখন দেখার।

বিশ্বকাপ দলে কারা কারা সুযোগ পাচ্ছেন, এটার ইঙ্গিত আগে দিয়ে দিয়েছিলেন বিসিবির সভাপতি। গত ২৬ মার্চ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পাপন জানিয়েছিলেন, আমরা তো ১৫ জনের একটা টিম পাঠাবো। তবে আমার ধারণা, তামিম, সৌম্য, লিটন, সাকিব, মুশফিক, রিয়াদ তো আছে। আর আমাদের তো তিনটা ফাস্ট বোলারকে খেলাতে হবে। মোস্তাফিজ, মাশরাফি ও রুবেল আছেই। এছাড়া আছে সাইফুদ্দিন ও তাসকিন। আমাদের আর স্পিনার নিতে হবে। মিরাজ তো আছেই। আমাদের অবশ্যই মিডল অর্ডারের জন্য একটা ব্যাকআপ লাগবে। সেখানে মিঠুনের ও সাব্বির থাকতে পারে।’

এবারের বিশ্বকাপ দলে কি থাকছে কোনো নতুন মুখ? সেটা জানার আগ্রহ রয়েছে সবারই। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি জানিয়েছিলেন, দলে খুব একটা চমক থাকার সম্ভাবনা নেই। তিনি জানান, একেবারে নতুন কারো দলে ডাক পাওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। ঘরোয়া লিগে একটা নতুন ছেলে যতই ভালো করুক না কেনো, আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। এছাড়া ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ওই সব জায়গার কন্ডিশনে খেলাটা নতুন ছেলের জন্য কঠিন। তবে আমাদের এশিয়া মহাদেশে খেলা হতো, তাহলে অন্য একটা কথা ছিলো। ঘরোয়াতে যতই ভালো করুক, হঠাৎ নতুন কেউ এসে সরাসরি বিশ্বকাপ খেলবে, এমন সম্ভাবনা খুবই কম।