গ্যাস সিলিন্ডারের বিস্ফোরণ থেকেই চকবাজারের আগুন: শিল্পমন্ত্রী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজ.কম
চকবাজারের চুড়িহাট্টা মোড়ের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে গ্যাস সিলিন্ডারের বিস্ফোরণ থেকেই বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। আজ বৃহস্পতিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন বলে মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

হাসপাতালে শিল্পমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, চকবাজার এলাকার সংঘটিত অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা গ্যাস সিলিন্ডারের বিস্ফোরণ থেকে সংঘটিত হয়েছে। এরপরও এ দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধান, প্রাথমিক ক্ষয়ক্ষতি নিরূপন এবং অগ্নি দুর্ঘটনা পুনরাবৃত্তিরোধে সুপারিশ দিতে শিল্প মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে ১২ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। প্রতিবেদন অনুযায়ী শিল্প মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন মন্ত্রী।
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিল্পমন্ত্রী জানান, পুরান ঢাকার রাসায়নিক ও প্লাস্টিক কারখানাগুলো পরিবেশবান্ধব ও নিরাপদ জায়গায় স্থানান্তরের লক্ষ্যে শিল্প মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে দুটি প্রকল্প নিয়েছে। এর মধ্যে রাসায়নিক কারখানা স্থানান্তরে কেরানীগঞ্জে ‘বিসিক কেমিকেল পল্লী প্রকল্প’ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। ৫০ একর জমির ওপর এ প্রকল্পে ৯৩৬টি প্লট থাকছে। ২০২১ সালের জুনের মধ্যে এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে। প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ২০১ কোটি ৮১ লাখ টাকা। এছাড়া প্লাস্টিক শিল্পের উন্নয়নে মুন্সিগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলার বরবর্তা মৌজায় ‘বিসিক প্লাস্টিক শিল্পনগরী প্রকল্প’ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। ৫০ এক জমির ওপর ওই শিল্পনগরীতে ৩৬০টি প্লট থাকবে। দ্রুত প্রকল্প দুটি বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানান মন্ত্রী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিল্পসচিব মো. আবদুল হালিম, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মফিজুল হক ও মিজানুর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিনসহ শিল্প মন্ত্রণালয়, ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ এবং বিসিকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

বুধবার দিবাগত রাতে চুড়িহাট্টার মসজিদ সংলগ্ন মোড়ে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৬৭ জনের পোড়া মরদেহ নেওয়া হয়েছে হাসপাতালের মর্গে। ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পাঁচটি ভবন। ঠিক কীভাবে ওই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয় সে বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস। তবে প্রত্যক্ষদর্শীদের ধারণা, ওই মোড়ে ভিড়ের মধ্যে থাকা একটি পিকআপে থাকা গ্যাস সিলিণ্ডার বিস্ফোরিত হওয়ার পর প্রথমে রাস্তায় থাকা যানবাহনে এবং পরে আশপাশের ভবনে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। পাইকারি পণ্যের বাজারের মধ্যে ওই ভবনগুলোর অধিকাংশ দোকানে প্লাস্টিক ও পারফিউমের গুদাম ছিলো। দাহ্য পদার্থ থাকায় দ্রুত আগুন ছড়িয়ে ক্ষয়ক্ষতি বেশি হয় বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস।

মন্ত্রী দুপুরে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন এবং দুর্ঘটনা কবলিত ভবনগুলোর পরিস্থিতি দেখেন। পরে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান দুর্ঘটনায় আহতদের দেখতে। সেখানে তিনি তাদের চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন।