চট্টগ্রামে শিশু ধর্ষণের পর হত্যায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

প্রতীকী ছবি।

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা, পিটিবিনিউজ.কম
চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ১০ বছরের শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে একজনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মোতাহির আলী এ রায় দেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামি আমির হোসেন জামাল বর্তমানে কারাগারে আছেন। তার বাড়ি ফটিকছড়ি উপজেলার ভুজপুর থানায়।

ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এম এ নাসের বলেন, ধর্ষণের পর শিশুটিকে হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ১৯ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে বিচারক এ রায় দিয়েছেন। তিনি জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৭ ধারায় আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ৯ (২) ধারায় তাকে মৃত্যুদণ্ডের সঙ্গে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, ২০০৮ সালের ১৬ মে হাটহাজারী উপজেলার মেখল গ্রামে ফুফুর বাড়িতে বেড়াতে যাওয়া শিশুটিকে ওই বাড়ির কৃষিশ্রমিক আমির ধর্ষণ করেন। পরে শিশুটিকে হত্যা করে মরদেহ খালে ফেলে দেয় আমির। পরদিন শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা আবদুর রহিম বাদি হয়ে আমির হোসেনকে আসামি করে হাটহাজারী থানায় মামলা করেন। পুলিশ ২০০৮ সালের ২৫ অগাস্ট আমিরের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়। পরের বছরের ৮ অক্টোবর আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগের মধ্যে দিয়ে বিচার শুরু হয়।