‘জমি পেলে স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য ফ্ল্যাট বানাবে রিহ্যাব’

নিজস্ব প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজ
সরকার জমি বা প্লট দিলে স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য ফ্ল্যাট তৈরি করে দিতে পারবে বলে জানিয়েছে রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (রিহ্যাব) সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিন। আজ বুধবার রিহ্যাব আবাসন মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের সামনের চত্বরে পাঁচ দিনব্যাপী এ মেলা শুরু হয়েছে আজ। আবাসন ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন রিহ্যাব মেলাটির আয়োজক। মেলার উদ্বোধন করেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

আবাসন খাতকে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়ে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, ‘যেসব আবাসন ব্যবসায়ী ক্রেতাদের সঙ্গে প্রতারণা (ফ্রড) করে, তাদের নাম দেন, আমরা ব্যবস্থা নেবো। সরকারের থেকে বড় ক্ষমতাবান কেউ নয়।’

এনবিআরের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, ‘আবাসন ব্যবসায় কিছু অসাধু লোক ঢুকে গেছে। তারা রিহ্যাবের সদস্য হয় না। মানুষের কাছ থেকে টাকা নিয়ে ফ্ল্যাট বুঝিয়ে দেয় না। তাদের কারণে বিরাট সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। আমার কাছে কয়েকজন অভিযোগ করেছেন, ৫-৬ বছর আগে জমি নিলেও এখন পর্যন্ত ভবনের নির্মাণকাজই শুরু করেনি আবাসন প্রতিষ্ঠান। এসব কারণে মানুষ আস্থা হারায়। ফ্ল্যাট কিনতে ভয় পায়।’

এনবিআরের চেয়ারম্যান আরো বলেন, ‘নতুন ভ্যাট আইন চলতি বছর কার্যকর হবে। অবশ্য সব ক্ষেত্রে ১৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করে জর্জরিত করবো না। যেসব খাত জনকল্যাণমূলক হবে, সেখানে ছাড় দেওয়া হবে। তবে যেটুকু ভ্যাট নির্ধারণ করা হবে, সেটি দিতে হবে।’

রিহ্যাব সদস্যরা এখন পর্যন্ত ২ লাখ ফ্ল্যাট ও ৭০ হাজার প্লট ক্রেতাদের বুঝিয়ে দিয়েছেন বলে জানান সংগঠনটির সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিন। জমির মূল্য অত্যধিক বেড়ে গেছে। তাই এই মুহূর্তে স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য ফ্ল্যাট নির্মাণ করার ক্ষমতা রিহ্যাব সদস্যদের নেই। তাই সরকারের কাছ থেকে জমি পেলে সাধারণ মানুষের জন্য রিহ্যাব সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলো ফ্ল্যাট নির্মাণ করে দিতে পারবে।

রিহ্যাবের সহ-সভাপতি নুরুন্নবী চৌধুরী স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য দীর্ঘমেয়াদি গৃহঋণ সুবিধা চালু করতে ২০ হাজার কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন তহবিল গঠন ও ফ্ল্যাট বা প্লটের নিবন্ধন ব্যয় কমিয়ে আনার দাবি জানান। এসব বিষয় বিবেচনা করার আশ্বাস দেন গৃহায়ণমন্ত্রী।

প্রতিবারের মতো এবারো আবাসন প্রতিষ্ঠানগুলো সম্পূর্ণ প্রস্তুত ও আধা প্রস্তুত ফ্ল্যাট ও প্লট নিয়ে মেলায় এসেছে। ঢাকা, চট্টগ্রাম, সাভারে ৪০ লাখ থেকে শুরু করে ৩ কোটি টাকার ফ্ল্যাট আছে। এই মেলায় আছে ২০২টি স্টল। এর মধ্যে ১৬৮টি আবাসনের, ২০টি নির্মাণ সামগ্রীর ও ১৪টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান।

উদ্বোধন শেষে আজ বেলা ২টা থেকে ক্রেতা-দর্শনার্থীরা মেলায় আসতে থাকেন। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে মেলা চলবে। মেলার শেষদিন রোববার। মেলায় প্রবেশের জন্য দুই ধরনের টিকিটের ব্যবস্থা থাকছে। একবার প্রবেশের জন্য ৫০ টাকার টিকিটের পাশাপাশি পাঁচ বার প্রবেশের জন্য মাল্টিপল টিকিটের মূল্য ১০০ টাকা। প্রবেশ টিকিটের অর্থ দুস্থদের সাহায্যার্থে ব্যয় করা হবে।

রিহ্যাবের সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, সংসদ ও রিহ্যাবের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি নুরুন্নবী চৌধুরী, রিহ্যাবের সহসভাপতি লিয়াকত আলী ভূঁইয়া, মো. আনোয়ারুজ্জামান, কামাল মাহমুদ, পরিচালক শাকিল কামাল চৌধুরী প্রমুখ।