লালমনিরহাটে সমাজকল্যাণমন্ত্রীর আগমনে দেড় শতাধিক তোরণ

আসাদুজ্জামান সাজু, লালমনিরহাট প্রতিনিধি, পিটিবিনিউজ.কম
দেড় শতাধিক তোরণ নির্মাণ ও মোটরসাইকেল র‌্যালি দিয়ে সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহম্মেদকে বরণ করে নিলেন লালমনিরহাট জেলাবাসী। আজ রোববার দুপুরে সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী থেকে পূর্ণ মন্ত্রী হওয়ার পর তিনি প্রথম নিজ জেলা লালমনিরহাট ও তার নির্বাচনী এলাকায় সফরে আসনে। জেলায় প্রথম সফরে এসে মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহম্মেদ স্থানীয় সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দর সঙ্গে মতবিনিময়সহ বিভিন্ন সংবর্ধনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

এ সময় তিস্তা সড়ক সেতু থেকে কালীগঞ্জস্থ তার নিজ বাস ভবন পর্যন্ত লালমনিরহাট-বুড়িমারী সড়কের দুই পাশে হাজার হাজার মানুষ ফুল ছিটিয়ে এবং ফুলের তোড়া দিয়ে মন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান। মন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়ক ও জেলার বিভিন্ন অঞ্চলিক সড়ক গুলোতে প্রায় দেড় শতাধিক তোরণ নির্মাণ করেন দলের নেতা-কর্মীরা। রাস্তার দুই পাশ ব্যানার-ফেষ্টুন দিয়ে সাজানো হয়। মন্ত্রীর বাড়ির সামনে তৈরি করা হয় এক সঙ্গে কয়েকটি আর্কষণীয় তোরণ। এর আগে সৈয়দপুর বিমান বন্দর থেকে মন্ত্রী বিশাল গাড়ি বহন নিয়ে লালমনিরহাট সাকির্ট হাউজে আসনে।

পরে জেলার বিভিন্ন স্থানে আওয়ামীলীগ আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠান গুলোতে নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, কোনো ধরনের প্রতিহিংসা নয়। ভালোবাসা দিয়ে সব ধর্ম, সব বর্ণের মানুষের উন্নয়নে কাজ করতে চাই। প্রধানমন্ত্রীর বিশ্বাস রক্ষায় দল-মত নির্বিশেষে লালমনিরহাট জেলার উন্নয়নে কাজ করবো। প্রধানমন্ত্রীর ভিশন ২০৪১ সাল বাস্তবায়নের পথে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।

জানা যায়, পিতা প্রয়াত সাংসদ করিম উদ্দিন আহমেদের হাত ধরে রাজনীতিতে আসেন নুরুজ্জামান আহমেদ। তার বাড়ি লালমনিরহাট-২ আসনের কালীগঞ্জ উপজেলায়। তার জন্ম ওই উপজেলার কাশিরাম গ্রামে। ওই উপজেলার তুষভান্ডার আরএমএমপি সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৬৫ সালে তিনি এসএসসি এবং ১৯৬৭ ও ১৯৬৯ সালে কারমাইকেল কলেজ থেকে যথাক্রমে এইচএসসি ও বি কম পাস করেন। পিতা প্রয়াত করিম উদ্দিন আহমেদ ১৯৭০ ও ১৯৭৩ সালে ছিলেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য। মূলত বাবার হাত ধরেই রাজনীতিতে হাতেখড়ি নুরুজ্জামানের। সেই বাবার বড় ছেলে নুরুজ্জামান আহম্মেদ ছিলেন, তুষভান্ডার ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান। দুইবার নির্বাচিত হয়েছেন কালিগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে। এরপর স্থানীয় সরকারের গন্ডি পেরিয়ে জাতীয় রাজনীতিতে তার অভিষেক হয় ২০১৪ সালের নির্বাচনে। ওই নির্বাচনে লালমনিরহাট-২ (কালীগঞ্জ-আদিতমারী) আসন থেকে প্রথম সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েই সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতি মন্ত্রীর দায়িত্ব পান নুরুজ্জামান আহম্মেদ। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ওই আসন থেকে বিপুল ভোটে বিজয়ী এই সাংসদ এবার প্রতিমন্ত্রী থেকে পূর্ণ মন্ত্রী হলেন।