যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার হলেন ন্যান্সি পেলোসি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, পিটিবিনিউজ.কম
যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের নিম্ন কক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার হিসেবে নির্বাচিত হলেন ডেমোক্রেটিক দলের ন্যান্সি পেলোসি। এ পদে আসীন ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর। তিনি ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্য থেকে নির্বাচিত ডেমোক্র্যাট প্রতিনিধি।

এর আগে মধ্যবর্তী নির্বাচনে জিতে প্রতিনিধি পরিষদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় ডেমোক্রেটিক দল। গতকাল প্রতিনিধি পরিষদের নির্বাচিত সদস্যদের শপথ নেওয়ার মধ্য দিয়ে সেখানে ডেমোক্র্যাট আধিপত্য শুরু হলো। এবারের কংগ্রেস নানা জাতি, ধর্ম, বর্ণের নির্বাচিত সদস্যের কারণে বৈচিত্র্যময় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

আজ শুক্রবার বিবিসি অনলাইনের খবরে জানানো হয়, ন্যান্সি পেলোসি (৭৮) ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্য থেকে নির্বাচিত ডেমোক্র্যাট। তিনি এমন একসময়ে নির্বাচিত হলেন, যখন যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে ট্রাম্পের দেয়াল নির্মাণে বাজেট বিতর্ক ইস্যুতে ফেডারেল সরকারের একাংশের কাজকর্ম বন্ধ। ডেমোক্র্যাটরা এই দেয়াল নির্মাণের বিরোধিতা করে বাজেট বরাদ্দে সিনেটে সমর্থন দেননি।

অন্যদিকে ট্রাম্প বরাদ্দ না পেলে অন্যান্য বাজেট বরাদ্দের কাগজপত্রে সই করবেন না বলে জানিয়েছেন। দুই পক্ষের অবস্থান পরিবর্তন না হওয়ায় বাজেট না পেয়ে ফেডারেল সরকারের একাংশের কাজকর্ম বন্ধ করে দেয়া হয়। বড়দিনের আগে ২১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া এই অচলাবস্থা এখনো কাটেনি। এ অবস্থায় প্রতিনিধি পরিষদে ডেমোক্র্যাটদের আধিপত্য এই ইস্যুতে তাঁদের বাড়তি সুবিধা দিতে পারে।

স্পিকার নির্বাচিত হয়ে ন্যান্সি পেলোসি বলেছেন, তিনি চান এ অচলাবস্থার সমাপ্তি হোক। তবে তিনি সীমান্তে দেয়াল নির্মাণে সমর্থন দেবেন না বলে জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রে নারীর ভোটাধিকারের শতবার্ষিকী উদ্‌যাপনের সময়ে কংগ্রেসে নারী স্পিকার হতে পেরে তিনি গর্বিত।

এবার কংগ্রেসে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ১০২ জন নারী নির্বাচিত হয়েছেন। এর মধ্যে ৩৬ জন নতুন নির্বাচিত। আর রেকর্ডসংখ্যক ৪৩ জন অশ্বেতাঙ্গ, যদিও অতীতের নির্বাচনে রিপাবলিকান নারীরা অনেক ক্ষেত্রে প্রথম হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন। টেনেসি অঙ্গরাজ্যের প্রথমবার কোনো নারী সিনেটর হয়েছিলেন রিপাবলিকান মার্শা ব্ল্যাকবার্ন। তবে এবার সংখ্যার দিক দিয়ে সবচেয়ে বেশি নতুন নারী নির্বাচিত হয়েছেন ডেমোক্রেটিক দলের। প্রথমবারের মতো দুজন মুসলিম নারী নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁরা হলেন মিশিগান থেকে নির্বাচিত ফিলিস্তিন মুসলিম রাশিদা ত্লায়েব এবং মিনেসোটার সোমালি মুসলিম ইলহান ওমর। দুজন আদিবাসী নারীও প্রথমবারের মতো কংগ্রেসে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁরা হলেন নিউ মেক্সিকোর দেব্রা হালান্দ এবং কানসাসের শ্যারিস ডেভিডস।

শপথ অনুষ্ঠানে যেখানে ডেমোক্র্যাটরা নানা ধর্ম–বর্ণের নারী-পুরুষের নির্বাচিত হওয়ার বিষয়টি উদ্‌যাপন করছিলো, তখন বিপরীত চিত্র দেখা গেছে রিপাবলিকান শিবিরে। নির্বাচিত রিপাবলিকানদের বেশির ভাগই শ্বেতাঙ্গ পুরুষ।

প্রতিনিধি পরিষদে শপথ নেওয়ার সময়ে ক্যাপিটল ভবনটিতে সবচেয়ে বড় মেঘ হিসেবে ছিলো ফেডারেল সরকারের একাংশের কাজকর্ম বন্ধ থাকা। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে চতুর্থবারের মতো সরকারের কাজকর্ম বন্ধ থাকার বিষয়টি এতো দীর্ঘ সময় ধরে চলছে। এটা ইতোমধ্যে একটি কংগ্রেস শেষ করে পরবর্তী কংগ্রেসের সময়ে গিয়ে ঠেকেছে। এরপরও শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানটি ভরে ওঠে সমর্থকদের প্রতি নির্বাচিতদের পুষ্পশোভিত বক্তব্যে। তবে এ উপলক্ষে শ্যাম্পেইন গ্রহণ পর্বটি সংক্ষেপ করা হয়, কারণ কংগ্রেসের প্রকৃত কাজ খুব দ্রুত শুরুর তাগাদা ছিলো।

ফেডারেল সরকারের কাজকর্ম শুরুর জন্য ডেমোক্র্যাটরা প্রতিনিধি পরিষদে ভোটের সময় নির্ধারণ করেন শপথ নেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই। ইতোমধ্যে সিনেটে রিপাবলিকানরা ট্রাম্পের দেয়াল নির্মাণের পক্ষে দাবিকৃত অর্থের ব্যাপারে সমর্থন দিয়েছেন।

ন্যান্সি পেলোসি ও তাঁর দলের নির্বাচিত সদস্যরা ফেডারেল চাকা সচল করতে বিল পাস করার কথা বলেছেন। তবে তাঁরা জানিয়েছেন, এই বিলে সীমান্তে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের দেয়াল নির্মাণে অর্থ বরাদ্দের বিষয়টি থাকবে না। সিনেটে রিপাবলিকানরা বলেছেন, প্রেসিডেন্টের অনুমোদন ছাড়া কোনো বিল তাঁরা পাস করবেন না। ফলে অচলাবস্থা আরো দীর্ঘ সময় ধরে চলতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য ৫০০ কোটি মার্কিন ডলার অর্থ বরাদ্দ না হলে বাজেটসংক্রান্ত কোনো আইনে স্বাক্ষর করবেন না বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প। ডেমোক্র্যাটরা জানিয়েছেন, তাঁরা ১৩০ কোটি ডলারের বেশি অর্থ বরাদ্দ সমর্থন করবেন না। ট্রাম্প যে পরিমাণ অর্থ চেয়েছেন, এর আগে রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদে তা পাস হয়েছে। তবে প্রেসিডেন্টের কাছে তা পৌঁছানোর আগে সিনেটে ৬০ ভোটে পাস হতে হবে। আর সিনেটে রিপাবলিকানদের আসন রয়েছে ৫১টি।

মার্কিন কংগ্রেসের সিনেট ও প্রতিনিধি পরিষদে মোট সদস্য ৫৩৫ জন। এর মধ্যে সিনেটে ১০০ জন ও প্রতিনিধি পরিষদে ৪৩৫ জন সদস্য রয়েছেন।

হোয়াইট হাউসে সংবাদ সম্মেলনকক্ষে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প স্পিকার নির্বাচিত হওয়ায় ন্যান্সি পেলোসিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘এটা অনেক বড়, অনেক বড় একটি অর্জন। আশা করা যায়, আমরা একসঙ্গে কাজ করতে যাচ্ছি।’