সরকার গঠন ১০ জানুয়ারির মধ্যেই সম্পন্ন হবে: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজ.কম
সাংসদদের শপথ, মন্ত্রীদের শপথ ও সরকার গঠনসহ সব আনুষ্ঠানিকতা ১০ জানুয়ারির মধ্যেই সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি ব‌লে‌ছেন, ১০ জানুয়ারি জা‌তির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মু‌জিবুর রহমা‌নের স্ব‌দেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আগেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী জনপ্রতিনিধিদের শপথ গ্রহণ এবং নতুন মন্ত্রিসভা গঠিত হতে পারে। আজ মঙ্গলবার (০১ জানুয়ারি) ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজকালের মধ্যেই জাতীয় নির্বাচনের ফলাফলের গেজেট হতে পারে। গেজেট হওয়ার পর এমপিদের শপথ হবে। তারপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করবেন। রাষ্ট্রপতি তাকে বিজয়ী দলের প্রধান হিসেবে সরকার গঠনের আহ্বান জানাবেন।

এক প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা যদি শপথ না নেন তাহলে সংবিধানের নিয়মানুযায়ী নির্ধারিত সময়ের পর সেসব স্থানে নতুন করে নির্বাচন হবে। এটা নির্বাচন কমিশনের বিষয়। যা কিছু হবে, নিয়মানুযায়ী হবে।

২০১৪ সালের নির্বাচনে অংশ না নিয়ে বিএনপি ভুল করেনি- বলে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যে বক্তব্য দিয়েছেন যে বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, তাদের গণতন্ত্রবিরোধী ভূমিকা কি গণতান্ত্রিক বিশ্ব সমর্থন করবে? ইতিমধ্যে এ নির্বাচনে বিজয়ের জন্য বিশ্বের বড় বড় রাষ্ট্রগুলোর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানানো হয়েছে।

ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচিতরা শপথ না নিয়ে জনগণের রায়কে অসন্মান করবেন না বলে ওবায়দুল কাদের আশা প্রকাশ করেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই নির্বাচনের মাধ্যমে আমরা নিজেদের ভুল, দুর্বলতা, সাংগঠনিক দুর্বলতা সব বুঝতে পেরেছি। নতুন বছরে সেগুলো কাটিয়ে উঠে পূর্ণ উদ্যোমে কাজ করবো।

নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে কাদের বলেন, নেতাকর্মীরা ধৈর্য্য ধরে, মাথা ঠাণ্ডা করে কাজ করবেন। কেউ বাড়াবাড়ি করবেন না, প্রতিপক্ষের প্রতি প্রতিহিংসাপরায়ণ হবেন না।

জাতীয় পার্টি এবারো সরকারের থাকবে কি-না এমন প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের বলেন, এ বিষয়টির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন আমাদের দলের সভাপতি শেখ হাসিনা। তিনি শরিকদের সঙ্গে আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন।

সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, আমাদের যে উন্নয়ন, সমৃদ্ধির যে অগ্রযাত্রা তা অব্যাহত রাখবো এবং আমাদের লক্ষ্যাভিমুখী আমরা এগিয়ে যাবো। নব নব বিজয়ে মুখরিত হবো।