ইউরোপিয়ান ফুটবলে বড়দিনের ছুটির আমেজ

স্পোর্টস ডেস্ক, পিটিবিনউজ.কম
বড়দিনের ছুটি শুরু হয়েছে ইউরোপিয়ান ফুটবলে। সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে পরশু জয়ের পরই ছুটির ঘণ্টা শুনতে পেয়েছেন বার্সেলোনার খেলোয়াড়েরা। পরিবার ও সন্তানদের নিয়ে এই সময়টা বরাবরই নিজেদের মতো করে উপভোগ করেন ফুটবলাররা। তা, এবার বড়দিনের ছুটিতে বার্সেলোনার তারকারা কে কোথায় যাচ্ছেন?

লিওনেল মেসিকে দিয়ে শুরু করা যায়। সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে ম্যাচ শেষে দুই ঘণ্টার মধ্যে ব্যক্তিগত বিমানে উঠেছেন মেসি। সঙ্গে জীবনসঙ্গী আন্তোনেলা রোকুজ্জো আর তিন সন্তান থিয়াগো, মাতেও ও চিরো। ক্লাব সতীর্থ ও বন্ধু লুই সুয়ারেজ এবং তাঁর পরিবারকেও নিজের বিমানে তুলেছেন মেসি।

জন্মভূমি রোজারিওতে নেমেছেন মেসি। এরপর সুয়ারেজের পরিবারকে নামিয়ে আসা হয়েছে উরুগুয়েতে। ২ জানুয়ারি পর্যন্ত বড়দিনের ছুটি পেয়েছেন মেসি। বার্সায় মেসি ছাড়া লাতিন আমেরিকার সব খেলোয়াড়ই ২ জানুয়ারি পর্যন্ত বড়দিনের ছুটি পেয়েছেন। লাতিন আমেরিকার ফুটবলারদের বাইরে ব্যতিক্রম শুধু মুনির এলো হাদ্দাদি। স্প্যানিশ এই ফরোয়ার্ডও ২ জানুয়ারি পর্যন্ত ছুটি পেয়েছেন। স্কোয়াডের বাকি খেলোয়াড়দের ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে ফিরতে হবে ক্যাম্প ন্যুতে।

রোজারিওর মালভিনাস বিমানবন্দরে মেসি তাঁর পরিবার নিয়ে নামার পরই বরাবরের মতো শোরগোল পড়ে যায়। বিমানবন্দরের অনেক কর্মী এ সময় মেসির সঙ্গে ছবি তুলেছেন। ছুটি শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত আর্জেন্টাইন এই তারকা যে ফুটবল থেকে কিছুদিনের জন্য দূরে থাকবেন, তা বলাই বাহুল্য।

বড়দিনে অনেকেই নিজ বাসায় থেকে ছুটি উপভোগ করতে চাইলেও সার্জিও বুসকেটস এ দলভুক্ত নন। বার্সা ডিফেন্ডার তাঁর পরিবার নিয়ে এবারের বড়দিন প্যারিসে কাটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বুসকেটস একা নন, প্যারিসে যাচ্ছেন ওউসমানে ডেমবেলেও। কয়েকজন বন্ধু নিয়ে ব্যক্তিগত বিমানে প্যারিসে গেছেন বার্সার এই ফরোয়ার্ড। বড়দিনের ছুটি শেষে ৬ জানুয়ারি গেটাফের মুখোমুখি হবে বার্সা।