সরকার ও ইসি মিলে গণতন্ত্রকে জবাই করছে: ফখরুল

ফাইল ছবি

কুমিল্লা সংবাদদাতা, পিটিবিনিউজ.কম
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘নির্বাচনে কোনো নিরপেক্ষতা নেই। অবাধ-সুষ্ঠু নির্বাচন হচ্ছে না। নির্বাচন প্রহসনে পরিণত হতে যাচ্ছে। সরকার ও নির্বাচন কমিশন মিলে গণতন্ত্রকে জবাই করছে।’

আজ বুধবার বেলা একটার দিকে কুমিল্লার চান্দিনায় (কুমিল্লা-৭) রেদওয়ান আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে এক নির্বাচনী পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘একজন নির্বাচন কমিশনার বলেছেন, নির্বাচনের লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই। আর প্রধান নির্বাচন কমিশন বলেছেন, না না, সব ঠিক আছে। কিন্তু তিনি সত্য বলেননি।’

পথসভায় উপস্থিত দলের নেতা-কর্মীরা সিইসিকে ‘ভুয়া ভুয়া’ স্লোগান দিলে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এখন তো সকলেই ভুয়া। নির্বাচন কমিশন ভুয়া। এই সরকারও ভুয়া। এ ভুয়া সরকার ও ভুয়া নির্বাচন কমিশন একসঙ্গে মিলে গণতন্ত্রকে জবাই করছে।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আমাদের ভয় দেখিয়ে কাজ হবে না। লাঠি-লগি-বইঠা দিয়ে গ্রেপ্তার করে লাভ হবে না। এবার ধানের শীষে ভোট দিয়ে গণতন্ত্রকে মুক্ত করবো। আওয়ামী লীগের আর কিছু নেই। তারা কাপুরুষ। এরা দেউলিয়া হয়ে গেছে। সে জন্য মেরে-কেটে পুলিশ দিয়ে গ্রেপ্তার করে, মিথ্যা মামলা দিয়ে জনগণকে পরাজিত করতে চায়। জনগণের ঐক্যবদ্ধ শক্তির কাছে সবকিছু ধূলিসাৎ হয়ে যাবে।’

৩০ ডিসেম্বর দল বেঁধে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দেশ ও গণতন্ত্রের স্বার্থে দল বেঁধে কেন্দ্রে যাবেন। কেন্দ্র পাহারা দেবেন। ভোটগণনা শেষ করে কেন্দ্র থেকে আসবেন। আওয়ামী লীগ একটা চক্রান্তকারী। অনেক কৌশল করেছে। জনগণের শক্তির কাছে কোনো কৌশল টিকবে না।’

ফখরুল বলেন, ‘এ নির্বাচন দেশের জন্য, গণতন্ত্রের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এতে নির্ধারিত হবে বাংলাদেশের মানুষ গণতন্ত্র নাকি স্বৈরতান্ত্রিক রাষ্ট্রে বসবাস করবে। এতে নির্ধারিত হবে লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতা রক্ষা করতে পারবো কি পারবো না। নিজের ইচ্ছায় জনপ্রতিনিধি নির্বাচন করতে পারবো কি পারবো না।’

আওয়ামী লীগের প্রার্থী আলী আশরাফের বিরুদ্ধে নির্বাচনে প্রচারণায় হামলা ও বাধার অভিযোগ তুলে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী রেদওয়ান আহমেদ বলেন, ‘প্রতিদ্বন্দ্বীকে বলতে চাই, আপনার ছেলেকে অত্যাচার–অনাচার বন্ধ করতে বলেন। না হলে চান্দিনাবাসী আপনাকে ছাড়বে না। আলী আশরাফ বিভিন্ন জায়গায় বলছেন, আমাকে সমাবেশ করতে দেয়া হবে না। তাঁর ছেলে অস্ত্র নিয়ে হামলা করছে। কর্মীদের মারধর করছে। মাইক ভেঙে দিয়েছে।’

কুমিল্লা-৩ আসনের বিএনপি প্রার্থী মুজিবুর রহমানকেও মির্জা ফখরুল মঞ্চে পরিচয় করিয়ে তাঁকে নির্বাচনে জয়ী করার আহ্বান জানান। আজ বুধবার নির্বাচনী প্রচার উপলক্ষে সকাল ১০টায় গুলশান কার্যালয় থেকে কুমিল্লার দিকে রওনা দেন বিএনপির মহাসচিব।