রাজনৈতিক জীবনে এমন নির্বাচন কোনো দিন দেখিনি: মওদুদ

ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজ.কম
নির্বাচন কমিশন, সিভিল ও পুলিশ প্রশাসন সম্পূর্ণভাবে সরকারের নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ। তিনি বলেছেন, আমার রাজনৈতিক জীবনে এমন নির্বাচন কোনো দিন দেখিনি। তাঁর নির্বাচনী এলাকাসহ সারা দেশে সরকারের মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীরা নির্বাচন কমিশন ও পুলিশের সহায়তায় আসন্ন জাতীয় নির্বাচন বানচালের জন্য কাজ করছে। আজ বুধবার (১২ ডিসেম্বর) রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, ৯ দিন ধরে তাঁর নির্বাচনী এলাকায় শতাধিক নেতা-কর্মীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে তাঁদের আহত করা হয়েছে। বিএনপির নেতা-কর্মীদের ভয়ভীতি দেখানো হয়েছে, যেন তাঁরা নির্বাচনী কোনো কাজে অংশ নিতে না পারেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের নোয়াখালী-৫ (কোম্পানীগঞ্জ-কবিরহাট) আসনে বিএনপির নেতা মওদুদ আহমদের নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বী। ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে সাবেক মন্ত্রী মওদুদ আহমদ বলেন, তিনি (ওবায়দুল কাদের) সাত-আটটি গাড়ি ও শতাধিক মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে সরকারি সুযোগ-সুবিধা ব্যবহার করে ক্ষমতার প্রভাব দেখিয়ে সব জায়গায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে মঞ্চের ওপর দাঁড়িয়ে মাইক ব্যবহার করে বক্তব্য দিচ্ছেন।

নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে মওদুদ আহমদ বলেন, রিটার্নিং কর্মকর্তা, সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা, পুলিশের এসপি ও ওসির কাছে বারবার অভিযোগ করেও কোনো সুফল পাননি তিনি।

মওদুদ আহমদ বলেন, গতকাল মঙ্গলবার নিরাপত্তার অভাবে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিতে পারেননি তিনি। নির্বাচনী প্রচারের কাজে বিএনপির যেসব কর্মী কাজ করছেন, তাঁদের বাধা দেয়া হচ্ছে, মামলা দেয়া হচ্ছে।

নির্বাচনী পরিবেশের কথা উল্লেখ করে মওদুদ আহমদ দাবি করেন, তাঁর নির্বাচনী এলাকায় কোনো সুষ্ঠু নির্বাচনের ন্যূনতম পরিবেশ নেই। লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড দূরের কথা, এখন সব জায়গায় ‘আন-লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ বিরাজ করছে। সারা দেশে একই অবস্থা। সরকারি দলের সবকিছু আছে, কিন্তু ভোট নেই। এই অবস্থা বুঝতে পেরে সরকার সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যকে বেছে নিয়েছে। তিনি বলেন, নির্বাচন বানচালের চেষ্টা চলছে। যতো বিধি ভঙ্গ হোক, নির্যাতন হোক, আমরা নির্বাচনের মাঠ ছাড়ব না। ৫০ শতাংশও সুষ্ঠু নির্বাচন হলে ৩০ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের অবস্থা জানা যাবে।

সাংবাদিকদের নিজ নির্বাচনী এলাকা সফরের আহ্বান জানিয়ে মওদুদ আহমদ বলেন, নোয়াখালী-৫ আসনে এসে দেখুন এখানে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচনী পরিবেশ আছে কি না। সন্ত্রাসীরা ভোটকেন্দ্র দখলের প্রস্তুতি শুরু করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে মওদুদ আহমদ নিজের আহত কর্মীদের নামের তালিকা দেন। তাঁর এলাকায় বিএনপির কার্যালয় ভাঙচুর ও আহত কর্মীদের ছবি দেখান। এছাড়া সরকারি সুবিধা ব্যবহার করে ওবায়দুল কাদেরের গণসংযোগ করারও ছবি দেখান।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সহদপ্তর সম্পাদক মনির হোসেন, তাইফুল ইসলাম প্রমুখ।