জামালপুরের ‘মনোয়ার’ সিনেমা হল সাময়িক বন্ধ

ছবি: সংগৃহীত।

জামালপুর সংবাদদাতা, পিটিবিনিউজ.কম
জামালপুর জেলা সদরে অবস্থিত ‘মনোয়ার’ সিনেমা হল গত ২ ডিসেম্বর থেকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তবে এটি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছে কর্তৃপক্ষ। তারা জানিয়েছে, নির্বাচনের পরই আবার চালু হবে হলটি।

হলটির মালিক লেবু মল্লিক আট বছর আগে মৃত্যু বরণ করেছেন। লেবু মল্লিকের স্ত্রী বিউটি বেগম দুই বছর আগে তার দুই ভাই আলমগীর ও জাহাঙ্গীরকে হল পরিচালনার দায়িত্ব দেন। তারাই এখন হলটি চালাচ্ছেন।

হল বন্ধ করে দেয়া প্রসঙ্গে হলটির পরিচালক মো. আলমগীর হোসেন বলেন, এখন সিনেমার ব্যবসা নেই। বিগত কয়েক বছর ধরেই ক্রমাগত লোকসান দিয়ে যাচ্ছি। কিছুদিন আগে যৌথ প্রযোজনার সিনেমা নির্মাণ হয়েছে, তখন কিছু সিনেমায় ব্যবসা করেছি। এখন আবার ভালো সিনেমার সংকট। এতো লোকসান দিয়ে তো আর ব্যবসা চালাতে পারি না। ব্যবসা হোক বা না হোক, প্রতি সপ্তাহে হলের মেশিন ভাড়া ঠিকই দিতে হয়। তাই ‘মনোয়ার’ বন্ধ করে দিতে চেয়েছিলাম। ভেবেছিলাম অ্যাপার্টমেন্ট করে ভাড়া দেবো। কিন্তু হল বন্ধের ঘোষণায় চারদিক থেকে ফোন আসা শুরু হয়েছে। বিনোদনের মাধ্যমটি বন্ধ হোক তা চাইছেন না অনেকেই। এখানকার উপজেলা নির্বাহী অফিসার (টিএনও) সাহেবও ফোন দিয়ে বন্ধ না করার কথা বলেছেন। তাই নির্বাচনের আগ পর্যন্ত হল বন্ধ থাকবে। আশা করছি নির্বাচনের পর আবার চালু করবো।

আলমগীর জানান, হলের দালানটি ভেঙে অ্যাপার্টমেন্টের পাশাপাশি সিনেমা হলটি নতুন করে গড়ার পরিকল্পনা করছেন তিনি।

গত দেড় বছর ধরে ‘মনোয়ার’র সিনেমা বুকিংয়ের দায়িত্বে আছেন বুকিং এজেন্ট মো. শাহজাহান। তিনি বলেন, হলটি একেবারে বন্ধ হচ্ছে না। নির্বাচনের পর আবার চালু হবে। তবে দুই ভাইয়ের মধ্যে হলের ভাড়া নিয়ে কিছুটা চলছে বলেও শুনেছি।

জানা গেছে, গত ২ ডিসেম্বর থেকে বন্ধ রয়েছে মনোয়ার সিনেমা হল। কলকাতা থেকে আমদানি করা ‘ভিলেন’ সিনেমাটি সর্বশেষ এই হলে প্রদর্শন করা হয়। দুই দিন চালানোর পরেই হলটি বন্ধ করে দেয়া হয়।

এর আগে জামালপুর জেলা সদরের ‘কথাকলি’, ‘নিরালা’ ও ‘সুরভী’ সিনেমা হল বন্ধ হয়ে যায়।