উন্নয়নের পক্ষে নৌকায় ভোট চাইলেন শেখ হাসিনা

ছবি : সংগৃহীত।

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) সংবাদদাতা, পিটিবিনিউজ.কম
আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আরেকবার ভোট দিয়ে দেশ সেবার সুযোগ করে দিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, নৌকায় ভোট দিলে কেউ কোনোদিন বঞ্চিত হয় না। এ সময় উন্নয়নের পক্ষে নৌকা মার্কায় জনতার ভোট চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আজ বুধবার (১২ ডিসেম্বর) বিকালে কোটালীপাড়ায় শেখ লুৎফর রহমান আদর্শ সরকারি কলেজ মাঠে আয়োজিত জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

টুঙ্গিপাড়াবাসীদের লক্ষ্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারাই আমাকে ভোট দেন, আপনারাই নির্বাচিত করেন। আপনাদের ভোটেই প্রধানমন্ত্রী হয়ে দেশ সেবা করি। আপনারাই আজকে আমার আপনজন। আপনাদের কাছে নৌকা মার্কায় ভোট চাই। ভোট দিয়ে আরেকটি বার দেশ সেবার সুযোগ করে দেবেন। তিনি আরো বলেন, সমগ্র বাংলাদেশের মানুষের কাছে আবেদন জানাই; মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নৌকা মার্কায় ভোট দিন। মানুষের ভাগ্য নিয়ে আর কেউ যেন ছিনিমিনি খেলেত না পারে সেজন্য নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে নির্বাচিত করতে সবার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

নৌকার জন্য ভোট চেয়ে শেখ হাসিনা বলেন, নৌকা মার্কায় ভোট চাই। জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করতে চাই। যাকে যেখানে প্রার্থী করেছি। সেখানেই তাকে নৌকা মার্কায় ভোট দিতে আহ্বান জানাচ্ছি। নৌকায় ভোট দিয়ে কেউ কখনো বঞ্চিত হয় না।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, আমাদের একটাই লক্ষ্য বাংলাদেশ আর গরিব থাকবে না। বাংলাদেশ আর কারো কাছে হাত পাততে হবে না। আমরা সবক্ষেত্রে উন্নয়ন করেছি। ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলব। আমাদের লক্ষ্য; সোনার বাংলা গড়ে তুলবো। এটা আমাদের প্রতিজ্ঞা।

শেখ হাসিনা বলেন, আমার পিতার হত্যাকাণ্ডের পর আমি দেশে আসতে পারিনি। আমি যাতে দেশে আসতে না পারি সে জন্য আমাকে নানা নানা বাধা দেয়া হয়েছিলো। এরপর ১৯৮১ সালে দেশে আসি। আমি তখন নিঃস্ব-রিক্ত। আপনাদের মাঝে খুঁজে পেয়েছিলাম আমার হারানো বাবার স্নেহ, হারানো মায়ের স্নেহ।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, আমাকে বারবার হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে, ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। আমি বারবার মৃত্যুর মুখোমুখি হয়েছি তবুও আমি ভয় পাইনি। আমাকে মারার জন্য কোটালীপাড়ায় বোমা পুঁতে রাখা হয়েছিলো। যে বোমা পুঁতেছিলো সেও কোটালীপাড়ার সন্তান। কিন্তু যে বোমা খুঁজে পেয়েছিল সেও একজন চায়ের দোকানদার। আমি ওই সময় প্রাণে বেঁচে গিয়েছি। সে চা দোকানদার বোমা উদ্ধার করেছিলো আমি তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। আমি জানি সে আজকে এই জনসভায় উপস্থিত আছে।

এর আগে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচার কার্যক্রম শুরু করেন প্রধানমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা

গোপালগঞ্জ-৩ (কোটালীপাড়া-টুঙ্গীপাড়া) আসন থেকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন শেখ হাসিনা। এ আসন থেকে বেশ কয়েকবার জাতীয় সংসদে প্রতিনিধিত্ব করেছেন তিনি।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় সভাপতিত্ব করছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ। এসময় উপস্থিত রয়েছেন চিত্রনায়ক রিয়াজ ও ফেরদৌস। বক্তব্য দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান প্রমুখ।

এ নির্বাচনী জনসভার মধ্য দিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করলেন আওয়ামী লীগের সভাপতি।