ফখরুলের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ আ.লীগের

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজ.কম
আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। আজ রোববার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধিদল নির্বাচন ভবনে নির্বাচন কমিশনারদের সঙ্গে বৈঠক করে এই অভিযোগ করে।

এইচ টি ইমাম অভিযোগ করেন, ‘তাঁরা কিছুদিন ধরে দেখছেন, সরকার ও ইসিকে বিভিন্ন দিক থেকে আক্রমণ করে বক্তব্য দেয়া হচ্ছে। এসব বিষয় এবং নির্বাচনে সবার জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টির জন্য কথা বলতেই তাঁরা নির্বাচন কমিশনে এসেছেন। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল সৈয়দপুর বিমানবন্দরে সমাবেশ করেছেন। এটি নির্বাচনী আচরণবিধির লঙ্ঘন। তাঁরা এটা নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছে। তারা বিষয়টি অনুসন্ধান করে ব্যবস্থা নেবে।’

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সবার জন্য সমান সুযোগ চায়। তারা বিশ্বাস করে, সবার জন্য স্বচ্ছ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হবে। তারা নির্বাচন কমিশনকে বলেছে, দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষক যারা আসবে, তাদের নির্বাচনী আইন এবং পর্যবেক্ষক নীতিমালা কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে। দেশে ১১৮টি নিবন্ধিত পর্যবেক্ষক সংস্থা রয়েছে। বিদেশ থেকেও যদি এ রকম পর্যবেক্ষক আসতে থাকে, তাহলে তাদের নিরাপত্তা দিতেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অনেক ব্যস্ত থাকতে হবে।’

আওয়ামী লীগ কি বিদেশি পর্যবেক্ষক আসা নিরুৎসাহিত করছে- এমন প্রশ্নের জবাবে এইচ টি ইমাম বলেন, তাঁরা এটা নিরুৎসাহিত করছেন না। তবে সবাইকে আচরণবিধি ও আইন মেনে চলতে হবে।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন প্রতিনিধিদলের সদস্যরা। প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ফারুক খান বলেন, তিনি মনে করেন, খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলের মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয়েছে, সবার জন্য সমান সুযোগ আছে। আইন সবার জন্য সমান।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলে নির্বাচনে লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরিতে বাধা সৃষ্টি করবে কি না; এমন প্রশ্নের জবাবে ফারুক খান বলেন, ‘আমি তো মনে করি, এটাই লেবেল প্লেয়িং গ্রাউন্ড। আইন সকলের জন্য এক। কোনো দলের প্রধান হলে তাঁর জন্য আইন তো অন্য রকম হবে না।’