ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজ.কম
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ‘ঘ’ ইউনিটের অধীনে প্রথম বর্ষ সম্মান শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। যাতে ২৬ দশমিক ২১ শতাংশ শিক্ষার্থী ভর্তির যোগ্য বিবেচিত হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশাসনিক ভবনের কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিসে সংবাদ সম্মেলন করে এই ফলাফল ঘোষণা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপার্চায অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান ।

ভর্তি পরীক্ষায় যোগ্য বিবেচিত ১৮ হাজার ৪৬৪ জনের মধ্যে এক হাজার ৬১৫ জন শিক্ষার্থী শেষ পর্যন্ত সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ, ব্যাবসায় শিক্ষা অনুষদ, কলা অনুষদ ও শর্ত সাপেক্ষে বিজ্ঞান অনুষদের অধীনে বিভাগগুলোতে লেখাপড়া করার সুযোগ পাবেন।

উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক মুহম্মদ সামাদ, ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার সমন্বয়ক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক সাদেকা হালিম এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক হাসিবুর রশি এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার জন্য ৯৫ হাজার ৩৪১ জন আবেদন করলেও শেষ পর্যন্ত গত ১২ অক্টোবর পরীক্ষা দেন ৭০ হাজার ৪৪০ জন। তাদের মধ্যে যারা ন্যূনতম ৪৮ পেয়েছেন, তাদেরই ভর্তির যোগ্য বিবেচনা করা হয়েছে।

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ডের নাম, পাসের সাল এবং মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বরের মাধ্যমে admission.eis.du.ac.bd ওয়েবসাইট থেকে ভর্তিচ্ছুরা তাদের ফল জানতে পারবেন। এছাড়া যে কোনো মোবাইল ফোন থেকে DU<>GHA<>Roll টাইপ করে ১৬৩২১ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়েও ফলাফল জানা যাবে।

উত্তীর্ণদের সবাই ২২ অক্টোবর থেকে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে গিয়ে ‘চয়েস ফরম’ পূরণ করতে পারবেন। কোটায় আবেদনকারীরা ১৭ অক্টোবর থেকে ২৪ অক্টোবরের মধ্যে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অফিস থেকে ফর্ম সংগ্রহ করে সেখানেই জমা দিতে পারবেন। ফলাফল নিরীক্ষণের জন্য নির্ধারিত ফি দিয়ে ১৭ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবরের মধ্যে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অফিসে আবেদন করতে হবে। এছাড়া অন্যান্য তথ্যের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি সংক্রান্ত ওয়েবসাইট দেখতে বলা হয়েছে।

গত শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় ও ক্যাম্পাসের বাইরে ৮১টি কেন্দ্রে ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হয়। পরীক্ষা শুরুর ৩১ মিনিট পরই হাতে লেখা প্রশ্নপত্রের ১৪টি ছবি সাংবাদিকদের হাতে আসে। পরে যাচাই করে দেখা যায়, এ প্রশ্নপত্র পরীক্ষা শুরু হওয়ার ৪৩ মিনিট আগে (সকাল ৯টা ১৭ মিনিটে) এক শিক্ষার্থীর মোবাইল ফোনে আসে।

‘প্রশ্নফাঁসের’ অভিযোগ ওঠার পর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলে। মঙ্গলবার সকালে তদন্ত কমিটির সদস্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক মাকসুদুর রহমান বলেন, আমরা গতকাল সন্ধ্যায় উপাচার্যের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছি। তার ভিত্তিতেই আজ ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হচ্ছে।

‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত সন্দেহে এ পর্যন্ত ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও পাবলিক পরীক্ষা আইনে একটি মামলাও করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*