‘জনগণ আছে বলেই এই সরকারের পতন ঘটানোর ক্ষমতা আর কারো নেই’

শরীফুল ইসলাম, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি, পিটিবিনিউজ.কম
আওয়ামী লীগের সঙ্গে জনগণ আছে বলেই এই সরকারের পতন ঘটানোর ক্ষমতা আর কারো নেই বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। আজ শনিবার (১৩ অক্টোবর) দুপুর ১টায় কুষ্টিয়া শহরের সিরাজুল হক মুসলিম হাই স্কুলে অভিভাবক সমাবেশে যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

‘২১ আগষ্টের গ্রেনেড হামলা যদি রাষ্ট্রযন্ত্র করে থাকে তবে পিলখানা হত্যাকান্ডও এই সরকারের দ্বারা করা হয়েছে’ বিএনপির এমন দাবি প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, ইতিমধ্যেই পিলখানা হত্যাকান্ডের বিচার হয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা জড়িত ছিলো, এটা সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। লন্ডনে বসে বিএনপি নেতা এই হামলার সঙ্গে কলকাঠি নেড়েছে তার তথ্য প্রমাণ ইতিমধ্যেই চলে এসেছে, সেটারও তদন্ত চলছে। আশা করছি এ বিষয়ে খুব শিগগিরই দেশবাসী জানতে পারবে।

জাতীয় ঐক্যের আন্দোলন প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, গত পাঁচ বছর ধরে এ কথা শুনেই আসছে দেশবাসী। বিএনপির যদি আন্দোলন করার শক্তি থাকত তবে এই সরকার অনেক আগেই বিদায় হয়ে যেতো। তিনি বলেন, সঙ্গে জনগণ আছে বলেই, এ সরকারের পতন ঘটানোর ক্ষমতা আর কারো নেই।

হানিফ বলেন, বিএনপি এখন একটি সন্ত্রাসী দল, তা আর্ন্তজাতিক আদালতেও প্রমাণিত। ২১ আগষ্টের পরে দেশেও এটা প্রমাণ হয়েছে যে, বিএনপি সামগ্রিক অর্থে একটি সন্ত্রাসী দল। এই দলের রাজনীতি করার কোনো অধিকারই থাকতে পারে না। এরকম একটি দলের আন্দোলন নিয়ে দেশবাসী ভাবছে না। আগামী নির্বাচন সংবিধানের বাইরে কিছু হওয়ার সম্ভাবনা নেই। এ নিয়ে সন্ত্রাসী দলের সঙ্গে আলাপ আলোচনারও কিছু নেই। তথকথিত আন্দোলনের বুলি দিয়ে কোনো কাজ হবে না। আন্দোলনের নামে আবারো যদি সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করতে নামে তবে জনগণই শক্ত ব্যবস্থা নেবে।

পরে হানিফ অভিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। এ সময় স্কুলের সভাপতি এ্যাডভোকেট অনুপ কুমার নন্দীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী ও কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মনজুর কাদের প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.