হংকংকে উড়িয়ে সেমির সম্ভাবনা বাঁচিয়ে রাখলো টাইগার যুবারা

ক্রীড়া প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজ.কম
অনুর্ধ্ব্য-১৯ এশিয়া কাপে গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে মাত্র ১১ ওভারেই হংকংকে হারিয়ে দিলো বাংলাদেশের যুবারা। শুরুতেই টাইগারদের বোলিং ঘুর্ণিতে মাত্র ৯২ রানে অলআউট হয় অতিথিরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১১.২ ওভারে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ। এই জয়ের ফলে বেঁচে রইলো সেমিফাইনালে খেলার আশা।

সোমবার পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩ উইকেটে জয়ের পর আজ মঙ্গলবার (২ অক্টোবর) হংকংয়ের যুবাদের একপ্রকার উড়িয়েই দিয়েছে বাংলাদেশের জুনিয়র টাইগাররা। হংকংয়ের দেয়া ৯২ রানের লক্ষ্য মাত্র ১১.২ ওভারেই পেরিয়ে গেছে বাংলাদেশ। দিনের অন্য ম্যাচে শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তানের ফলাফলের ওপর এখন নির্ভর করছে বাংলাদেশের সেমিফাইনালের টিকিট।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। উদ্দেশ্য হংকংকে অল্পতেই গুটিয়ে দিয়ে নিজেরা দ্রুত সে রান তাড়া করে ফেলা। যেই কথা সেই কাজ। বোলারদের সম্মিলিত আক্রমণে টসে হেরে ব্যাট করতে নামা হংকং অলআউট হয় মাত্র ৯১ রানে। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট নেন লেগস্পিনার রিশাদ হোসেন। ২টি করে উইকেট নেন মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী ও রাকিবুল। অন্য ৩ উইকেট নেন শরীফুল ইসলাম, মিনহাজুর রহমান ও শামীম হোসেন।

জবাবে রান তাড়া করতে নেমে উইকেটের তোয়াক্কা না করে দ্রুত রান তোলার দিকেই মনোযোগ দেয় যুবারা। যার ফলে মাত্র ১১.২ ওভারে লক্ষ্যে পৌঁছলেও খোয়াতে হয় ৫টি উইকেট। দলের পক্ষে মাত্র ২০ বলে ৩২ রান করে মাহমুদুল হাসান জয়।

এছাড়া উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান আকবর আলী ১৯ বলে ২৫ ও উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তানজিদ হাসানের ব্যাট থেকে আসে ১৫ রানের ইনিংস।

গ্রুপের তিন ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের নেট রান রেট এখন +০.৮৪। সেমির লড়াইয়ে টিকে থাকা পাকিস্তানের দুই ম্যাচের নেট রানরেট +১.৩৪৫। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তারা ব্যাট করছে ২০২ রানের লক্ষ্যে।

একদম শেষ বলে গিয়ে জিতলেও রানরেটে এগিয়ে থেকে সেমিতে যাবে পাকিস্তানই। আর এরই মধ্যে সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়েছে শ্রীলঙ্কার। ফলে বাদ পড়ে যাবে বাংলাদেশ। ফলে পাকিস্তানের হার কামনা ছাড়া আর কোনো পথ খোলা নেই টাইগার যুবাদের সামনে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.