গাজীপুরে মাদ্রাসা পরিচালকের স্ত্রী ও ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

গাজীপুর সংবাদদাতা, পিটিবিনিউজ.কম
গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের চান্দনা এলাকার একটি মাদ্রাসা থেকে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তারা হলেন- এলাকার হুফ্‌ফাজুল কোরআন মাদ্রাসার পরিচালক মো. ইব্রাহিম খলিলের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার (২০) ও মাদ্রাসার নুরানি বিভাগের ছাত্র মো. মামুন (৯)। আজ মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকালে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুক্তার হোসেন বলেন, আজ সকালে চান্দনা এলাকায় জোড়া খুনের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। মাদ্রাসার পরিচালক মো. ইব্রাহিম খলিলের থাকার ঘরে মরদেহ দুটি পড়ে ছিলো মাহমুদার গলা, গাল ও কানে এবং মামুনের ঘাড়, মাথা ও পিঠে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ঘরের ভেতর থেকে রক্তমাখা একটি দা ও দা ধার দেয়ার কাজে ব্যবহৃত একটি কাঠের খণ্ড উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি বলেন, প্রায় দুই বছর ধরে ইব্রাহিম ওই মাদ্রাসা পরিচালনার দায়িত্ব পালন করছেন। মাদ্রাসার একটি কক্ষেই সপরিবারে বাস করেন তিনি।

ইব্রাহিম জানান, আজ ভোরে স্ত্রী মাহমুদা এবং তাঁর দুই সন্তান হুযায়ফা (৫) ও আবু হুরায়রাকে (৩) ঘরে রেখে তিনি পাশের মসজিদে ফজরের নামাজ পড়ার উদ্দেশ্যে বের হয়ে যান। নামাজ শেষে ঘরে ফিরে বিছানার ওপর স্ত্রী মাহমুদা এবং দরজার কাছে মামুনের রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। এ বিষয়ে তিনি আর কিছুই জানেন না।

মাদ্রাসার ছাত্র সাব্বিরের বরাত দিয়ে বাসন থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আল আমিন জানান, গতকাল সোমবার রাতে হুজুরকে (ইব্রাহিমকে) উদ্ধার হওয়া দা ধার দিতে দেখেছে। আর আজ ভোরে ফজরের নামাজে যাওয়ার আগে সাব্বিরকে দিয়ে নিহত মামুনকে মাদ্রাসার অন্য কক্ষ থেকে হুজুরের কক্ষে ডেকে পাঠায়।

গাজীপুর মহানগর পুলিশ কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান আজ সকাল সাড়ে ৯টায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.