বিকালে আফগানের বিপক্ষে লঙ্কার বাঁচা-মরার লড়াই

স্পোর্টস ডেস্ক, পিটিবিনিউজ.কম
এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে হেরে দারুণ চাপে আছে শ্রীলঙ্কা। দারুণ বোলিংয়ে শুরু করা লঙ্কানরা ১৩৭ রানে হার মানে টাইগারদের কাছে। সেই চাপ নিয়েই গ্রুপ পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে ‘বি’ গ্রুপের খেলায় আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে তারা। আর আসরে টিকে থাকতে হলে এই ম্যাচে জয়ের কোনো বিকল্প নেই লঙ্কানদের সামনে। হারলে আজই বিদায় নিতে হবে হাথুরু সিংহের দলকে। আজ সোমবার বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৫টায় দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এই ম্যাচটি শুরু হবে।

এক আসর বিরতি দিয়ে এশিয়া কাপে ফিরেছে আফগানিস্তান। এশীয় শ্রেষ্ঠাত্বের এই আসরে তাদের অভিষেক হয় ২০১৪ সালে। সেবার বাংলাদেশকে হারিয়েই আসর শুরু করে তারা। গতবার জায়গা না হলেও এবারের আসরে শিরোপায় চোখ আফগানিস্তানের বিশ্বকাঁপানো বোলার রশিদ খানের। আগেই জানিয়েছেন,‘অবশ্যই পারি আমরা শিরোপা জিততে। টুর্নামেন্টটা উপভোগ করতে চাই। চাপের সময়গুলো ঠাণ্ডা মাথায় কাটাতে পারলে যেকোনো কিছু সম্ভব।’

টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সফল দল শ্রীলঙ্কা এশিয়া কাপের শুরু থেকেই ধুকছে। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে ইনজুরি হানা দেয় লঙ্কান স্কোয়াডে। ইনজুরির কারণে দল থেকে ছিটকে যান দিনেশ চান্ডিমাল ও দানুশকা গুনাথিলাকা। আর প্রথম ম্যাচে অবিশ্বাস্য বাংলাদেশের কাছে বিধ্বস্ত হয় দলটি। যদিও লাথিস মালিঙ্গার আগুন-ঝরা বোলিংয়ে বাংলাদেশের টপ অর্ডার ধসিয়ে দিয়েছিল তারা। কিন্তু মুশফিকুর রহীমের এক মহাকাব্যিক ইনিংস ও মোহাম্মদ মিঠুনের লড়াইয়ে চ্যালেঞ্জিং স্কোর করে টাইগাররা। অবশ্য ওই ম্যাচের মোমেন্টাম বদলে দেন তামিম ইকবাল। বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল এই ব্যাটসম্যান দলের প্রয়োজনে ভাঙা হাত নিয়ে নেমে পড়েন মাঠে। মুশফিককে সঙ্গ দিয়ে দলের স্কোরে যোগ করান গুরুত্বপূর্ণ ৩২ রান। বাকি কাজটা সারেন বাংলাদেশের বোলাররা। যার নেতৃত্বে ছিলেন অধিনায়ক মাশরাফী স্বয়ং। শ্রীলঙ্কা গুটিয়ে যায় ১২৪ রানে। ১৩৭ রানের বিশাল জয় নিয়ে টাইগাররা এক পা দিয়ে রাখে সুপার ফোরে।

পাঁচ বারের এশীয় চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা আসরের প্রথম ম্যাচেই বড় ধাক্কা খেলো। আজ আরো একবার চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি তারা। আসরে নিজেদের অবস্থান টিকিয়ে রাখতে হলে রশিদ খান, মোহাম্মদ নবীদের চ্যালেঞ্জ কাটাতেই হবে। নয়তো আজই ধরতে হবে ফিরতি বিমানের টিকিট। তবে হতাশার মাঝে স্বস্থির বিষয় হলো এর আগে আফগানিস্তানের সঙ্গে দুইবারের দেখায় দুইবারই জিতেছে লঙ্কানরা। পূর্ব পরিসংখানই হয়তো আজ শক্তি যোগাবে লঙ্কান ক্রিকেটারদের। যদিও ছাড় দিতে রাজি নয় আফগানরাও। কেননা আজ হারলে তাদের হাতে বাকি থাকবে আর একটি ম্যাচ। বাংলাদেশের বিপক্ষে সেই ম্যাচ আবার তাদের জন্য হয়ে উঠবে মরন-বাঁচনের লড়াই। সবকিছু মিলিয়ে এশিয়া কাপের মঞ্চে আজ ‍খুব লড়াইপূর্ণ ম্যাচেই আফগানদের মুখোমুখি হবে ম্যাথুজের দল।

অন্যদিকে দ্বিতীয়বারের মতো এশিয়া কাপে খেলতে গিয়েছে আফগানিস্তান। ক্রিকেট দুনিয়ায় নবাগত এই দলটি এরই মধ্যে নিজেদের শক্তি জানান দিতে শুরু করেছে। উপহার দিয়েছে মোহাম্মদ নবী, রশিদ খান ও মুজিব উর হকের মতো প্রতিভাবান ক্রিকেটারদের। বিশ্ব আসরে নিজেদের সামর্থ্যের পরিচয় দিতে এশিয়া কাপে ভালো কিছু করতে চাইবে আসগর আফগানের দলটি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.