‘এই মেডিকেল বোর্ড দিয়ে খালেদার সঠিক চিকিৎসা হবে না’

নিজস্ব প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজ.কম
কারাবন্দী খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় সরকার গঠিত মেডিকেল বোর্ড দিয়ে ‘উপযুক্ত ও সঠিক’ চিকিৎসা হবে না মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটি সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

আজ রোববার রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘এই মেডিকেল বোর্ড নিয়ে আমরা অসন্তুষ্ট। আমরা মনে করি না যে সরকার দলীয় সমর্থিত চিকিৎসকদের দিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উপযুক্ত চিকিৎসা হবে। এটা আমরা বিশ্বাস করতে পারছি না।’

আগের যারা খালেদার চিকিৎসা করতেন, তাদের অন্তর্ভুক্ত করে নতুন করে মেডিকেল বোর্ড করে সেই বোর্ডের মাধ্যমে বিএনপি চেয়ারপাসনকে চিকিৎসা দেয়ার দাবি জানান দলটির এই জ্যেষ্ঠ নেতা।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের বৈঠকের প্রসঙ্গ টেনে খন্দকার মোশাররফ বলেন, আমাদেরকে ওইদিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী কথা দিয়েছিলেন, ‘আমাদের নেত্রীর কিছু সংখ্যক চিকিৎসক, যারা তার চিকিৎসা করে থাকেন এবং সরকারের কিছু চিকিৎসক দিয়ে এক সঙ্গে একটি মেডিকেল বোর্ড করবে।’

বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা বলেন, ‘যখন মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে তখন দেখা গেল শুধু সরকারের দেয়া ডাক্তারদের দিয়ে এই বোর্ড করা হয়েছে। এতে আমরা হতাশ হয়েছি। আমরা মনে করি, সরকার সমর্থিত চিকিৎসকদের দিয়ে যে বোর্ড করা হয়েছে, সেই বোর্ডের পরামর্শে সঠিক চিকিৎসা হবে না।’

নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী উপস্থিত ছিলেন।

জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের সাজার রায়ে গত ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে আছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। অসুস্থতার কারণে অন্যান্য মামলায় তিনি আদালতে হাজির হতে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছেন। এর প্রেক্ষিতে গত ৯ সেপ্টেম্বর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সঙ্গে দেখা করে খালেদার স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ জানানোর পর গত বৃহস্পতিবার এই মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক আব্দুল জলিল চৌধুরীর নেতৃত্বে এই বোর্ডের সদস্যরা শনিবার কারাগারে গিয়ে খালেদা জিয়াকে দেখে আসেন।

বোর্ডের অন্য সদস্যরা হলেন- কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক হারিসুল হক, অর্থোপেডিক সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক আবু জাফর চৌধুরী, চক্ষু বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তারেক রেজা আলী ও ফিজিকেল মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক বদরুন্নেসা আহমেদ।

বিএনপি ইতোমধ্যে অভিযোগ করেছে, সরকারের ‘পছন্দ অনুযায়ী প্রতিবেদন’ তৈরির পরিকল্পনা থেকে ‘অনুগত ও পছন্দের লোকদের’ দিয়ে এই মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.