এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক, পিটিবিনিউজ.কম
লাসিথ মালিঙ্গার দুর্দান্ত বোলিংয়ে কেঁপে উঠেছিলো বাংলাদেশ। প্রথম ওভারে ১ রানে ২ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় তামিমরা। লিটন কুমার দাস ও সাকিব আল হাসানের বিদায়ের পর দ্বিতীয় ওভারে বাঁ-হাতে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন দেশ সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। শুরুতে তিন ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফিরে গেলে কোণঠাসা হয়ে যায় বাংলাদেশ দল। সেই অবস্থা থেকে দলকে উত্তরণ করেন মোহাম্মদ মিঠুন ও মুশফিকুর রহিম। তৃতীয় উইকেটে ১০৬ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েছেন তারা। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের সংগ্রহ ২১ ওভারের খেলা শেষে ১০৭ রান। ৫৩ ও ৪৬ রান নিয়ে ব্যাট করছেন মিঠুন ও মুশফিক।

অবশ্য দুইজনেই জীবন পেয়েছেন লঙ্কান ফিল্ডারদের অসতর্কতায়। মিঠুন দুইবার জীবন পেয়ে তার সদ্ব্যবহার করেছেন ঠিকই। তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের প্রথম হাফসেঞ্চুরি। ব্যাট করছেন ৫৪ রানে। অপরপ্রান্তে থাকা মুশফিক তুলে নিয়েছেন ফিফটি। ব্যাট করছেন ৫০ রানে। বাংলাদেশের স্কোর ২ উইকেটে ২২ ওভারে ১১৩ রান।

শুরুতেই বিপদে বাংলাদেশ দল। ইনিংসের প্রথম ওভারেই শূন্য রানে সাজঘরে ফিরেছেন ওপেনার লিটন দাস। তার বিদায়ের ঠিক পরের বলে ফিরেন সাকিব আল হাসান। অফ স্টাম্পের বাইরের বলে খোঁচা দিতে গিয়ে বিপদে পড়েন লিটন। প্রথম স্লিপে ক্যাচ দিয়ে শূন্য রানেই ফেরেন এই ওপেনার। সাকিব কিছু বুঝে ওঠার আগেই দেখেন লাসিথ মালিঙ্গার বলে বোল্ট। মাত্র ১ রানে ২ উইকেট হারিয়ে একঘরে হয়ে পড়েছে বাংলাদেশ দল।

এরপর ঢিমে তালে চলে বাংলাদেশের রানের চাকা। ইনিংসের প্রথম বাউন্ডারি পেতে অপেক্ষায় থাকতে হয় অষ্টম ওভার পর্যন্ত।

প্রাথমিক ধাক্কা সামাল দিতে থাকা মুশফিক-মিঠুন লঙ্কান বোলারদের ওপর আধিপত্য বিস্তার করতে থাকেন ধীরে ধীরে। এই জুটি যখন হুমকি হয়ে উঠছিল তখনই জুটি ভাঙার সুবর্ণ সুযোগটি আসে। দশম ওভারে থিসারা পেরেরার বল স্কয়ার লেগে আলতো করে উঠিয়ে দিয়েছিলেন মুশফিক। লঙ্কান ফিল্ডাররা ব্যর্থতার সেই ধারা ধরে রাখেন মুশফিকের বেলাতেও। ক্যাচ হাতে নিতে পারেননি দিলুরুয়ান পেরেরা।

এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলংকার বিপক্ষে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। সংযুক্ত আরব আমিরাতে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.