ফিলিপাইনের দিকে ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় মাংখুট

ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, পিটিবিনিউজ.কম
প্রায় ২০০ কিলোমিটার গতিসম্পন্ন চার মাত্রার শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় মাংখুট ফিলিপাইনের দিকে ধেয়ে আসছে। এ বছর ফিলিপাইনে আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে যাচ্ছে এটি। ঘূর্ণিঝড়ের সঙ্গে উপকূলীয় এলাকায় ২৩ ফুট উঁচু জলোচ্ছ্বাস হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে ফিলিপাইন কর্তৃপক্ষ।

ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানার আগেই ফিলিপাইনের উপকূলবর্তী এলাকা থেকে হাজার হাজার মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে লুজন দ্বীপে ভূমিধসের সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এছাড়া ঝড়ের প্রভাবে ভারি বৃষ্টিপাতে ভূমিধস ও আকস্মিক বন্যা হওয়ার সতর্কতাও জারি করা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের কারণে আগামীকাল শনিবার ফিলিপাইনের সব অফিস এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিকে কৃষকরা ঝড় আসার আগে তাদের জমির আধা-পাকা ধান ঘরে তুলতে দিনরাত পরিশ্রম করছেন। তারা বলেন, জমির সব ধান পাকতে এখনো কয়েকদিন সময় প্রয়োজন ছিলো। কিন্তু ঝড়ের কারণে আমরা এখনই এগুলো কাটতে বাধ্য হচ্ছি। নতুবা আমাদের সবই হারাতে হবে।

দেশটির আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে এটি ঘণ্টায় ২০৯ কিলোমিটার বাতাসের গতি নিয়ে সমুদ্র থেকে উপকূলের দিকে উঠে আসছে। এর আগে ঘুর্ণিঝড়টি পাঁচমাত্রার প্রলয়ঙ্কারী রূপ নিয়ে নর্দান মেরিয়ানা আইল্যান্ড ও গুয়ামে আঘাত হানে। তখন বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ২৫৫ কিলোমিটার।

স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, ‘আমরা লড়াই করতে প্রস্তুত। তারা বলছে এটা খুবই শক্তিশালী, আমরা আতঙ্কের মধ্যে আছি।’

ফিলিপিন্সের ইতিহাসে ২০১৩ সালে আঘাত হানা ঘূর্ণিঝড় হাইয়ানের তাণ্ডবে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি হয়েছিলো। সেবার সাত হাজারের বেশি মানুষ মারা যায়, ক্ষতিগ্রস্ত হয় কয়েক লাখ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*