নৌখাতের উন্নয়নে নৌ অধিদপ্তরকে দুর্নীতিমুক্ত করার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজবিডি.কম
নৌ পরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়ন তথা জাতীয় স্বার্থে এই খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা নৌ পরিবহন অধিদপ্তরকে স্বচ্ছ ও জবাবদিহিমূলক করার দাবি জানিয়েছে বেসরকারি সংগঠন নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটি। একই সঙ্গে সংস্থাটির কতিপয় কর্মকর্তা-কর্মচারির গত পাঁচ বছরের লাগামহীন অনিয়ম ও দুর্নীতি খতিয়ে দেখতে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞসহ বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন তদন্ত কমিটি গঠনেরও দাবি জানিয়েছে দীর্ঘদিন ধরে নৌখাতের উন্নয়নে কাজ করে আসা বেসরকারি এই সংগঠন। আজ সোমবার জাতীয় কমিটির সভাপতি হাজী মোহাম্মদ শহীদ মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আশীষ কুমার দে এক বিবৃতিতে এই দাবি জানান।

সম্প্রতি দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) রাজধানীর একটি হোটেল থেকে ঘুষের পাঁচ লাখ টাকাসহ নৌ অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী এস এম নাজমুল হককে গ্রেপ্তারের পরিপ্রেক্ষিতে এই দাবি পুনরুত্থাপন করা হয় বলে সংগঠনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। এ ধরনের একজন প্রভাবশালী দুর্নীতিবাজকে হাতেনাতে পাকড়াও করায় দুদকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়। এছাড়া অনিয়ম-দুর্নীতির আরও অনেক তথ্য উদঘাটনের স্বার্থে নাজমুল হকের সহযোগীদের গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদের দাবি জানানো হয় বিবৃতিতে।

তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বিবৃতিতে বলা হয়, “গত বছরের জুলাই মাসে নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী এ কে এম ফখরুল ইসলামকে গ্রেপ্তারের পর নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটি অধিদপ্তরের সকল অনিয়ম-দুর্নীতি তদন্তে বিচারিক কমিশন গঠনের দাবি তুলে বলেছিল, শুধু প্রধান প্রকৌশলীকে গ্রেপ্তার হলেই অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ হবে না।” কিন্তু সরকার জাতীয় কমিটির অভিযোগ আমলে না নিয়ে সর্বজনস্বীকৃত শীর্ষ দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা নাজমুল হককেই নৌ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলীর চলতি দায়িত্ব প্রদান করে। অথচ দুর্নীতি দমন কমিশন ২০১৪ সাল থেকেই তাঁর বিরুদ্ধে অনুসন্ধান করছে। চলতি দায়িত্ব প্রাপ্তির পরও এই কর্মকর্তার অনিয়ম, দুর্নীতি ও বিপুল পরিমাণ অবৈধ অর্থ-সম্পদ নিয়ে দেশের শীর্ষস্থানীয় পত্রিকাগুলোতে বেশ কয়েকটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশিত হলেও নৌ মন্ত্রণালয় অদৃশ্য কারণে তাঁর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এমনকি নাজমুল হকের উদাসীনতা ও অযোগ্যতার কারণে বিদেশী অর্থায়নে চলমান জিএমডিএসএস প্রকল্প মুখ থুবড়ে পড়ার উপক্রম হলেও প্রকল্প পরিচালক (পিডি) পদে গত চার বছর যাবত তাকেই বহাল রেখেছে সরকার।

বিবৃতিতে নৌ পরিবহন ব্যবস্থার আমূল সংস্কার ও উন্নয়ন তথা জাতীয় স্বার্থে সমুদ্রগামী জাহাজের নাবিকদের বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা, অভ্যন্তরীণ জাহাজের নকশা অনুমোদন, মাস্টারশিপ ও ড্রাইভারশিপ পরীক্ষা, অভ্যন্তরীণ ও সমুদ্রগামী- সব ধরনের জাজাজের ফিটনেস পরীক্ষা (সার্ভে) ও নিবন্ধন প্রদানসহ নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের সকল কর্মকান্ডে গতিশীলতা সৃষ্টি এবং স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার জোর দাবি জানানো হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.