সেই কাটার মোস্তাফিজে কাঁপছে আয়ারল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক, পিটিবিনিউজ.কম। ওয়েবসাইট: www.ptbnewsbd.com

0

কেউ কেউ বলেন, নাহ, মোস্তাফিজের আগের সেই দিন নেই। তার কাটার চিনে ফেলেছে ক্রিকেট বিশ্ব। কে বলে হারিয়ে গেছেন কাটার বয়? নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে গত ম্যাচেই অসাধারণ বোলিং করেছিলেন। জানিয়ে দিয়েছিলেন, নাহ, তিনি মোটেও হারিয়ে যাননি। আজ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে রীতিমত জ্বলে উঠেছেন তিনি। বল করতে এসে শুরুতেই দলকে এনে দেন উইকেট। এরপর থেকে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট নিয়েই চলেছেন কাটার বয়। তাকে খেলতেই পারছে না আইরিশ ব্যাটসম্যানরা। একাই চার উইকেট নিয়ে গুঁড়িয়ে দিয়েছেন স্বাগতিকদের ব্যাটিং। অথচ এই মোস্তাফিজকে আইপিএল কতাটা অবজ্ঞাই না করা হয়েছিলো। তার মতো বোলারকে ম্যাচের পর ম্যাচ বসিয়ে রাখা হলো ডাগ আউটে! ব্যাপারটা প্রতিভাবান বোলারটির জন্য একদিকে যেমন বিব্রতকর, তেমনটি লজ্জারও। অনেকেই বলেছেন, এবারের আইপিএল একরকম অবিচারই করা হয়েছে মোস্তাফিজের ওপর। ১২ মে প্রথম ম্যাচটা খেলতে নেমে ২.৪ ওভারে ৩৪ রান দিয়েছিলেন তিনি। এই অপরাধে তাঁকে এক মাস বসিয়ে রাখা হয়েছে ড্রেসিং রুমে।

এক ম্যাচে খারাপ করায় টানা একাদশের বাইরে রাখাটা অনেকেই মানতে পারেননি। একজন খেলোয়াড় তো সব ম্যাচ ভালো করবেন না। খারাপ দিন আসতেই পারে। মোস্তাফিজের প্রথম ম্যাচটা খারাপ গেছে, এটা যেতেই পারে। কিন্তু তাই বলে বিশ্বের অন্যতম সেরা বোলারকে ওভাবে উপেক্ষা করে ঠিক করেনি সানরাইজারার্স হায়দরাবাদ। যে কিনা ঠিক তার আগেই টি-টোয়েন্টি ম্যাচেই জ্বলে উঠেছিলেন বল হাতে। মাত্র ২১ রানে ৪ উইকেট নিয়ে শ্রীলঙ্কাকে একাই গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন এ পেসার।

হায়দরাবাদ কাজটা যে ঠিক করেনি সেই প্রমাণ এখনও দিচ্ছেন কাটার বয়। আগের ম্যাচে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে ১৭ রানে নিয়েছিলেন ২ উইকেট।

ত্রিদেশীয় সিরিজে আরো উজ্জ্বল তিনি। আগের সেই স্লোয়ার, কাটার। আগের ম্যাচে তাকে খেলতেই পারেনি কিউই ব্যাটসম্যানরা। অন্য বোলাররা যেখানে প্রচুর রান দিয়েছেন, সেখানে মোস্তাফিজ ব্যতিক্রম। আজ তো আরো বিপজ্জনক তিনি। তার বোলিং তোপে কাঁপছে আইরিশ ব্যাটিং। এ প্রতিবেদন লেখার সময় আয়ারল্যান্ডের সংগ্রহ ৪২ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬৫ রান। ২২ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন মোস্তাফিজ।
দ্বিতীয় স্পেলের দ্বিতীয় বলেই উইকেট তুলে নেন অভিষিক্ত সানজামুল ইসলাম। বাঁহাতি স্পিনারের বলে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়েন ব্যারি ম্যাক্যার্থি (১২)। ইনিংসে এটি সানজামুলের দ্বিতীয় উইকেট।

নিজের আগের ওভারেই ফিরিয়েছিলেন কেভিন ও’ব্রায়েনকে। পরের ওভারে এসে আবার উইকেট তুলে নেন মুস্তাফিজুর রহমান। তার শর্ট বলে উইকেটকিপার মুশফিকুর রহিমকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন গ্যারি উইলসন (৬)। ইনিংসে এটি মুস্তাফিজের চতুর্থ উইকেট।

শুরুর দিকে মাশরাফির বলে পোর্টারফিল্ডের সহজ একটি ক্যাচ ছেড়েছিলেন মোসাদ্দেক হোসেন। সেই মোসাদ্দেকই মুস্তাফিজের বলে দুর্দান্ত এক ক্যাচ নেন কেভিন ও’ব্রায়নের। বাঁহাতি পেসারের বল আকাশে ভাসিয়েছিলেন আইরিশ ব্যাটসম্যান। কভার বাউন্ডারি থেকে অনেকটা দৌড়ে এসে সামনে ঝাঁপিয়ে পড়ে বল তালুবন্দি করেন মোসাদ্দেক। ইনিংসে এটি মুস্তাফিজের তৃতীয় উইকেট।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকটা দারুণ হয়েছে সানজামুল ইসলামের। বাঁহাতি স্পিনার তার প্রথম ওভারেই পেয়েছেন উইকেট। ২৯তম ওভারের শেষ বল লং-অনের ওপর দিয়ে উড়িয়ে মারতে গিয়ে তামিমের ক্যাচে পরিণত হন এড জয়েস (৪৬)। আয়ারল্যান্ডের স্কোর তখন ৫ উইকেটে ১২৬।

চতুর্থ উইকেটে ৫০ রানের জুটি গড়ে ফেলেছিলেন এড জয়েস ও নেইল ও’ব্রায়েন। জুটি ভাঙতে ২৮তম ওভারে মুস্তাফিজকে আক্রমণে আনেন অধিনায়ক মাশরাফি। দ্বিতীয় স্পেলে ফিরেই ৫৫ রানের জুটি ভাঙেন ‘দ্য ফিজ’। বাঁহাতি পেসারের বল উড়িয়ে মারতে গিয়ে থার্ডম্যানে তামিম ইকবালকে ক্যাচ দেন ও’ব্রায়েন। আগের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করা এই ব্যাটসম্যান এদিন ফেরেন ৩০ করেই। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে উইকেটে আসেন তার ভাই কেভিন ও’ব্রায়েন।

সাকিব আল হাসানের প্রথম ওভারে ছক্কা মেরেছিলেন অ্যান্ড্রু ব্যালবিরনি। নিজের পরের ওভারে এসেই মধুর প্রতিশোধ নেন সাকিব। বাঁহাতি স্পিনারের সোজা বলের লাইন মিস করে বোল্ড হন ব্যালবিরনি (১২)। আয়ারল্যান্ডের স্কোর তখন ৩ উইকেটে ৬১।

আগের ওভারে মাশরাফির বলে পোর্টারফিল্ডের সহজ ক্যাচ ফেলেছিলেন মোসাদ্দেক। তবে পরের ওভারে প্রথমবার বোলিংয়ে এসে সেই পোর্টারফিল্ডকে ফিরিয়ে ভুলের প্রায়শ্চিত্ত করেন অফ স্পিন অলরাউন্ডার। বোলারকে ফিরতি ক্যাচ দেয়া পোর্টারফিল্ড ২৫ বলে করেন ২২।

নিজের প্রথম ওভারের শেষ বলে ছক্কা খেয়েছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। বাংলাদেশ অধিনায়ক তার পরের ওভারের দ্বিতীয় বলেই উইকেট পেতে পারতেন। কিন্তু শর্ট এক্সট্রা কভারে উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডের সহজ ক্যাচ তালুবন্দি করতে পারেননি মোসাদ্দেক হোসেন।

ইনিংসের প্রথম ওভারটি মেডেন নিয়ে ভালো শুরুর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন রুবেল হোসেন। পরের ওভারে তৃতীয় বলেই বাংলাদেশকে সফলতা এনে দেন মুস্তাফিজুর রহমান। বাঁহাতি পেসারের অফ স্টাম্পের বলে খোঁচা মেরে শর্ট থার্ডম্যানে সাব্বির রহমানকে ক্যাচ দেন পল স্টার্লিং। শূন্য রানেই এক উইকেট হারায় আয়ারল্যান্ড।

বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ডের একাদশে একটি করে পরিবর্তন এসেছে। মেহেদী হাসানকে বাদ দিয়ে সানজামুল ইসলামকে অভিষেক ক্যাপ পরিয়েছে বাংলাদেশ। অন্যদিকে ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা এড জয়সেকে জায়গা দিতে বাদ পড়েছেন আইরিশ তারকা সিমি সিং।

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে ৩১.১ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ ১৫১ রান তোলে। এরপরই শুরু হয় বৃষ্টি। ভারী বৃষ্টি ও বৈরী আবহাওয়ার কারণে দুই দলকেই পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে হয়।ফের সানজামুলের আঘাত, অষ্টম উইকেটের পতন

নিজেদের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে ৫১ রানে হারিয়ে শুভসূচনা করে নিউজিল্যান্ড। বুধবার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে কিউইদের কাছে হেরে যায় বাংলাদেশের। মাশরাফিদের করা ২৫৭ রান ১৫ বল ও ৪ উইকেট হাতে রেখেই পেরিয়ে যায় টম ল্যাথামের দল।

বাংলাদেশ দল: মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), মুশফিকুর রহীম, তামিম ইকবাল, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, রুবেল হোসেন, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, মোস্তাফিজুর রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন ও সানজামুল ইসলাম।

আয়ারল্যান্ড দল: উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড (অধিনায়ক), এন্ড্রু ব্যালব্রিন, পিটার চেজ, জর্জ ডকরিল, এড জয়েস, টিম মুরতাগ, ব্যারি ম্যাকার্থি, কেভিন ও’ব্রায়েন, নেইল ও’ব্রায়েন, পল স্টারলিং, ও গ্যারি উইলসন।

সম্পাদনা : সূর্য দাস।

Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterPrint this page