সাংবাদিক শিমুলের মাথায় পাওয়া ‘লেড বল’ মেয়র মিরুর শটগানের

সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা, পিটিবিনিউজ.কম। ওয়েবসাইট: www.ptbnewsbd.com

0
সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল। ফাইল ছবি।

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুলের মাথা থেকে পাওয়া ‘লেড বলটি’ শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র হালিমুল হক মিরুর শটগানের। আজ সোমবার (২০ মার্চ) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহজাদপুর থানার পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, আদালতে জমা দেয়া লেডবলের ব্যালেস্টিক প্রতিবেদনে একথা জানিয়েছে অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। ডাকযোগে সিআইডি ওই প্রতিবেদন আদালতে পাঠায় বলে জানান তিনি।

পরিদর্শক মনিরুল বলেন, ব্যালেস্টিক প্রতিবেদনের একটি কপি আদালত আর একটি কপি আমাদের হাতে এসে পৌঁছেছে। প্রতিবেদনে শিমুলের মাথায় বিদ্ধ লেডবল মেয়র মিরুর শটগান থেকে ছোড়া হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

এরআগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি সাংবাদিক শিমুলের মাথায় পাওয়া লেডবলটি মেয়র মিরুর শটগানের কি না তা নিশ্চিত হতে ঢাকার সিআইডিতে ব্যালেস্টিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিলো।

গত ২ ফেব্রুয়ারি শাহজাদপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি বিজয় মাহমুদকে মেয়র মিরুর ভাই পিন্টু অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে হাত-পা ভেঙে দেন বলে অভিযোগ ওঠে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা মেয়রের বাড়ি ঘেরাও করেন। এ সময় মেয়রের পক্ষে দুইটি শটগান থেকে গুলি ছোড়ার খবর আসে গণমাধ্যমে। এই সংঘর্ষের খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম শিমুলের মৃত্যু হয়। শিমুল হত্যায় তাঁর স্ত্রী নুরুন্নাহার বেগম বাদী হয়ে মেয়রসহ ১৮ জনকে আসামি করে মামলা করেন। অজ্ঞাতপরিচয় আসামি করা হয় আরো ২০-২৫ জনকে। এই মামলায় মেয়র মিরু ও তাঁর ভাই মিন্টুসহ ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাছাড়া এ ঘটনার পর মিরুকে জেলা আওয়ামী লীগ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন তিনি।

সম্পাদনা : অরুন দাস।

Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterPrint this page