বিসিএস, ব্যাংক জবস ও এমবিএ অ্যাডমিশনের জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা

0

একটা চাকুরি মানে একটা সুন্দর জীবনের নিশ্চয়তা। কিন্তু চাকরি পাওয়ার পথটা অবশ্যই সুন্দর না এবং অনেক চ্যালেঞ্জিং। আর সেই চ্যালেঞ্জে নিজের অবস্থান আরো শক্ত করার জন্য আমরা কেউ কেউ এমবিএ করি। আবার ভাল চাকরির জন্য আমরা বিসিএস এবং ব্যাংক জবকেই প্রায়োটারাইজ করি। কিন্তু এই সব গুলা ক্ষেত্রের প্রিপারেশন ই প্রায় কাছাকাছি। এবং এই কাছাকাছি ফ্যাক্টরগুলো নিয়ে আজকের পোষ্ট।

১ # ইংরেজীর প্রতি গুরুত্ব দিন

সাধারণত এমবিএ তে বেশীরভাগের ই দূর্বলতা থাকে ইংরেজীতে। অথচ একটা গ্র্যাজুয়েটোর সবচেয়ে শক্তিশালী পার্ট হওয়া উচিত ইংরেজী। যেহেতু ইংরেজী ইন্টারন্যাশনাল ল্যাংগুয়েজ, সুতরাং এর গুরুত্ব সবসময় ই থাকবে। তাই ইংরেজীর প্রতি সর্বাধিক গুরুত্ব দিন।

২ # অল্প পড়ুন, কিন্তু নিয়মিত

আমরা সব সময় সবাইকে বলি যে যাই পড়ুন, কিন্তু প্রতিদিন পড়ুন। অল্প হোক, তাও প্রতিদিন পড়বেন। এর ফলে আপনার প্রিপারেশনের পাশাপাশি ফাইট করার মত পজিটিভ মানসিকতা তৈরী হবে। যেটা মানসিক ভাবে অনেকের চেয়ে আপনাকে এগিয়ে দিবে। তবে ছুটির দিনগুলোতে একটু বেশী সময় দেওয়ার চেষ্টা করুন।

৩ # ফেইসবুকে বিভিন্ন গ্রুপে যোগ দিন

ফেইসবুক কিংবা অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম এখন আমাদের ব্যক্তিগত জীবনে ভাল ভুমিকা রাখতেছে। আর তাই অনেক ছোট বড় গ্রুপের মাধ্যমে একই চিন্তাধারার লোকজন নিজেদের মধ্যে নেটওয়ার্কিং করছে। তাই ফেইসবুকে এসব গ্রুপে যোগ দিন। MBA Admission Test for IBA একটা ভাল গ্রুপ এমবিএ এর জন্য। এসব গ্রুপে রেগুলার ই বিভিন্ন জন বিভিন্ন প্রবলেম পোষ্ট করে। ঐগুলার সাথে আপডেট থাকবেন, সবার কমেন্টে ব্যাখ্যা গুলা দেখবেন। এভাবে মজার মধ্যে মধ্যে দেখবেন অনেক এগিয়ে গেছেন।

৪ # পড়ুন এবং অবশ্যই লিখুন

যাই পড়বেন, লিখে ফেলার চেষ্টা করুন। তাহলে সহজে ভুলবেন না। আমাদের পড়ার জিনিষের মধ্য থেকে অনেক কিছুই কমন পড়ে দেখবেন। কিন্তু লেখার টাইমে সেগুলা আর মনে পড়ে না। এই সমস্যার একটা সহজ এবং কার্যকরী সমাধান হচ্ছে লিখে ফেলা। সেক্ষেত্রে দেখবেন, যেকোনো সময় একটু কমন পড়লেই চিন্তা করে মনে করে ফেলতে পারবেন।

৫ # অপ্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে মাথা জ্যাম করবেন না

অনেকেই আছে একের পর এক ম্যাটেরিয়াল ডাউনলোড করে, বিভিন্ন রকম প্রশ্ন করতে থাকে সবাইকে ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তু এত রিসোর্স প্রসেস করার সামর্থ্য একজন মানুষের জন্য অসম্ভব। তাই এইসব রিসোর্স আপনার মাথাকে জ্যাম ছাড়া কিছু করবে না। তাই ভাল যেকোনো একটা বই ফলো করুন, যেকোনো একজন বা দুইজনের সাজেশন নিন। তারপরে সেটা ফলো করতে থাকুন। আশা করি ব্যর্থ হবেন না।

পোষ্টটি পড়ে  ভাল লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন এবং সেই সাথে পিটিবি নিউজের পেইজে লাইক দিতে পারেন এখানে

Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterPrint this page