বিসিএস নাকি কর্পোরেট জবঃ কোনটা করা উচিত?

0

বর্তমানে চাকুরির বাজারের সবচেয়ে বড় ক্রেজের নাম হচ্ছে বিসিএস। মধ্যে একটা সময় ছিল যখন প্রথম সারির ছাত্রছাত্রীরা প্রাইভেট সেক্টরেই বেশী ঝুকছিল। কিন্তু আস্তে আস্তে আবার বিসিএস এর দিকে তারা ঝুঁকে পড়ছে এবং ভাল  ভাল ছেলে মেয়েরা এখন সরকারি চাকুরিতে জয়েন করার চেষ্টা করছে। কিন্তু বিসিএস এর আসন তো সীমিত। কয়েক লক্ষ পরীক্ষার্থী থেকে শেষ পর্যন্ত টিকে কয়েক শত মাত্র। অর্থাৎ যদি কয়েক হাজার ছাত্রছাত্রী ও খুব মেধাবী থাকে এবং তাদের প্রস্তুতি ও খুব ভাল থাকে তবু তাদের মধ্য থেকে ও অনেকে বাদ পড়বে।

এবার আসি কর্পোরেট জবের কথায়। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক রিপোর্টে প্রায়ই আসে বাংলাদেশে প্রচুর বেকার গ্র্যাজুয়েট ছেলে মেয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তাদের কোথাও চাকুরি হচ্ছে না। অথচ রিক্রুটাররা বলছে তারা আসলে যোগ্য লোক পাচ্ছে না। তাহলে এই মিস কমিউনিকেশনটা হচ্ছে কোথায়। এক্সপিরিয়েন্সড রিক্রুটারদের মতে এই মিসকমিউনেকশনটা হচ্ছে নিজের সামর্থ্যের ব্যাপারে চিন্তা না করে ঝোকের মধ্যে একই সেক্টরে সবার ঝুকে পড়া। এ মূহুর্তে অবশ্যই সেই ঝোকটা হচ্ছে কর্পোরেট।

তাই শুধু বিসিএস এর পিছনে দৌড়ানো পরবর্তীতে আপনাকে ঝামেলায় ফেলতে পারে। কারণ, যদি কয়েকবার বিসিএস এ আপনি ব্যর্থ হওয়ার পরে কর্পোরেটের দিকে আগান, সেক্ষেত্রে আপনার জুনিয়রা ও অনেকে এগিয়ে যাবে আপনার থেকে। তাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে অবশ্যই কর্পোরেটে জয়েন করা এবং চাকুরির পাশাপাশি বিসিএস এর জন্য ট্রাই করা অথবা প্রথমেই একবার খুব ভাল করে প্রস্তুতি নিয়ে বিসিএস দেওয়া এবং যদি না হয় তাহলে সাথে সাথে জবে জয়েন করে আগের প্রিপারেশনটাকেই ঝালাই করে করে পরীক্ষা দেওয়া।

আর যদি আপনি চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করেন তাহলে কর্পোরেট জবের চেয়ে মজা কিছু নাই। আবার আপনি যদি নিশ্চয়তা চান, তাহলে অবশ্যই বিসিএস। এখন নিজেকে প্রশ্ন করেন আপনি আসলে কিসের জন্য প্রস্তুত। মনে রাখবেন, সময় বেশী নেই। তাই এখন ই সময়কে গুরুত্ব দিন এবং জীবনের জন্য সেরা সিদ্ধান্তটা নিন।

বিসিএস প্রস্তুতিঃ ইংরেজীতে দক্ষতা বাড়ানোর ৭ টি টিপস

Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterPrint this page