পাবনায় ভূমিমন্ত্রীর ছেলেসহ গ্রেপ্তার ১১

পাবনা সংবাদদাতা, পিটিবিনিউজ.কম। ওয়েবসাইট: www.ptbnewsbd.com

0

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাঙচুরের এক মামলায় ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফের ছেলে শিরহান শরীফ তমালসহ ছাত্রলীগ ও যুবলীগের ১১ নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে যৌথ বাহিনী। আজ শুক্রবার ভোররাতে উপজেলার বিভিন্নস্থান থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাই তালুকদার এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেপ্তার হওয়া ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শরীফ ঈশ্বরদী উপজেলা যুবলীগেরও সভাপতি। অন্যদের নাম জানানো হয়নি।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পাবনা-৪ আসনের সাংসদ, পাবনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর সঙ্গে তার মেয়ের জামাই ঈশ্বরদীর পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদের বেশ কয়েকদিন ধরে বিরোধ চলছিলো। এরই জেরে বৃহস্পতিবার বিকালে ভূমিমন্ত্রীর ছেলে উপজেলা যুবিলীগ সভাপতি শিরহান শরীফ তমাল এবং উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক রাজিব সরকারের নেতৃত্বে ১০/১৫ জনের একদল ঈশ্বরদী পৌর সদরে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালায়। এ সময় মন্ত্রীর জামাতা আবুল কালাম আজাদ মিন্টুর মিষ্টির দোকানসহ বেশ কিছু সাধারণ ব্যবসায়ীর দোকানে ব্যাপক ভাঙচুর চালান তারা। একই সময়ে হামলাকারীরা আবুল কালাম আজাদের সমর্থিত উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাসের বাড়িতেও ভাঙচুর চালান। এ সময় বাধা দিতে গেলে তাদের মারধরে ছাত্রলীগ সভাপতির মা আহত হন।

ওসি আব্দুল হাই তালুকদার জানান, এই হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগ সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাসের বাবা মুক্তিযোদ্ধা আতিয়ার বিশ্বাস বাদী হয়ে ঈশ্বরদী থানায় বৃহস্পতিবার রাতে একটি মামলা করেন। মামলায় ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শিরহান শরীফ তমালকে এক নম্বর ও যুবলীগ নেতা রাজিব সরকারকে দুই নম্বর আসামি করা হয়। এরপর রাতেই অভিযানে নামে ঈশ্বরদী ও পাবনার ডিবি পুলিশের একটি যৌথ টিম। তারা বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে হামলার সঙ্গে জড়িত অভিযোগে ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শিরহান শরীফ তমালসহ ১২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সম্পাদনা : অরুন দাস।

Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterPrint this page