নিজেকে প্রভাবশালী মন্ত্রী মানতে নারাজ কাদের

0
ফাইল ছবি: সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

নিজেকে প্রভাবশালী মন্ত্রী হিসেবে মানতে নারাজ ওবায়দুল কাদের। বলেছেন, আমি প্রভাবশালী মন্ত্রী শব্দটাই খারাপ। মন্ত্রী মন্ত্রীই। নো, নো প্রভাবশালী, ইয়েস আই অ্যাম অ্যাকটিভ নট ইনফ্লুয়েনসিয়াল। মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ‘প্রভাবশালী মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হয়েও পরিবহনখাতের চলমান সমস্যার সমাধান করতে পারছেন না কেনো’ সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে কাদের এসব কথা বলেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, আমি সফলও বলি না, আমি ইনফ্লুয়ন্সিয়ালও বলি না। আই অ্যাম অ্যাকটিভ, প্রো-অ্যাকটিভ, নট রি-অ্যাকটিভ।… আমি কোনো দিনও আমাকে সফল বলিনি।

রাজধানীর গণপরিবহনে ১৫ এপ্রিলের পর থেকে সিটিং সার্ভিস বন্ধের ঘোষণা দেয় ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। এরপর বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) জানায়, ঢাকায় সিটিং সার্ভিস বন্ধে ১৬ এপ্রিল থেকে অভিযান চালানো হবে। ১৬ এপ্রিল, রোববার সেই ঘোষণার বাস্তবায়ন শুরুর পর অতিরিক্ত ভাড়া আদায় নিয়ে যাত্রীদের সঙ্গে বচসা-মারামারির ঘটনা ঘটে বিভিন্ন স্থানে। অনেক মালিক রাস্তায় গাড়ি না ছাড়ায় যাত্রীরা ব্যাপক ভোগান্তিতে পড়েন। ১৭ এপ্রিল, সোমবারও বাস না পেয়ে বিভিন্ন মোড়ে যানবাহনের আশায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় যাত্রীদের। কয়েকটি পরিবহন কোম্পানির সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তাদের এক তৃতীয়াংশ গাড়ি রাস্তায় নামেনি।

পরিবহন সেক্টর ও রাস্তাঘাট কি আগের তুলনায় এখন ভালো নয়?
সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের বলেন, এই দেশের পরিবহন সেক্টর কি আগের সরকারের তুলনায় এখন ভালো নয়? এই দেশের রাস্তাঘাট কি আগের থেকে ভালো নয়? দুই একটি ব্যাপার নিয়ে বলবেন যে মন্ত্রী সাহেব আপনি একেবারেই ব্যর্থ। ব্যর্থতার ভাগ আছে, সব তো ব্যর্থ না।

সবই ব্যর্থ বলছেন কেনো?
সেতুমন্ত্রী বলেন, এই যে রাস্তাঘাট এ রকম দেখেছেন কোনো দিন? এদেশে মেট্রোরেল হচ্ছে, এদেশে পদ্মাসেতু হচ্ছে- এগুলো তো আগেও চেষ্টা ছিল। এদেশে ফোরলেইন হয়েছে। এদেশে রাস্তাঘাটে আজকে ৯০ বা ৮৫ পারসেন্ট মিটার সিস্টেম চালু করিনি? কিছু ভুলক্রটি আছে, চালু তো করেছি। ডিজিটাল নম্বর প্লেট, এগুলো কি চালু করেনি, সবই ব্যর্থ কেনো বলছেন?

ভালো কাজের প্রশংসা করেন
সাফল্যের পাশাপাশি ব্যর্থতাও থাকতে স্বীকার করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সব সাফল্য নয়, কিন্তু সাফল্যের ভাগটা বেশি। অবশ্যই আপনারা যদি রিয়েলেস্টিক অ্যাপ্রোচ নিয়ে দেখেন স্বীকার করতে হবে। ভালো কাজের প্রশংসা করেন, যেটা ভালো নয় সেটার সমালোচনা করুন।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের ছাত্রী নাফিয়া গাজির পরিবারকে ক্ষতিপূরণের আড়াই লাখ টাকার চেক প্রদান করেন। বিআরটিসি আদালতের রায় অনুযায়ী নাফিয়ার পরিবারকে ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিবে।

ক্ষতিপূরণ প্রদান অনুষ্ঠানে সড়ক পরিবহন ও সেতু বিভাগের সচিবসহ উধ্বর্তৃন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সম্পাদনা: রাজু আহমেদ।

Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterPrint this page