খুব দ্রুতই লিটন হত্যা রহস্য উদঘাটন করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজ.কম। ওয়েবসাইট: www.ptbnewsbd.com

0

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, গাইবান্ধা-১ আসনের সাংসদ মনজুরুল ইসলাম লিটনের হত্যাকারীদের শনাক্ত করে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হবে। খুব দ্রুত লিটনের হত্যারহস্য উদঘাটন করা হবে। হত্যাকারীদের কেউ ছাড় পাবে না। জড়িত ব্যক্তিদের খুঁজে বের করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একটি চৌকস দল কাজও শুরু করেছে। আজ বুধবার দুপুরে রংপুরের জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১৫তম বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সাংসদ লিটন হত্যাকাণ্ডে কারা জড়িত এবং কেনো এই হত্যাকাণ্ড তা তদন্তে বের করা হচ্ছে। এজন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সিনিয়র গোয়েন্দা অফিসাররা তৎপর রয়েছে। খুব দ্রুতই লিটন হত্যার সঙ্গে জড়িতদের সনাক্ত করে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হবে। তিনি আরো বলেন, অতীতে যত হত্যাকাণ্ড হয়েছে, সব কটির সঙ্গে জড়িত খুনিদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হয়েছে। লিটনের হত্যাকারীরা যে-ই হোক না কেনো, তাদের খুঁজে বের করা হবে। কেউ রেহাই পাবে না।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, সাংসদ লিটন হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের শনাক্ত করে আইনের মুখোমুখি করা হবে। তাদের খুঁজে বের করতে ইতিমধ্যে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একটি চৌকস দল কাজও শুরু করেছে।

রংপুরসহ উত্তরাঞ্চলে জঙ্গিদের উত্থান ও তাদের তৎপরতা প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, উত্তরাঞ্চলে জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিশেষ নজর রয়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে যেসব জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং বন্দুকযুদ্ধে যতজন জঙ্গি নিহত হয়েছে, তাদের অনেকের বাড়ি রংপুরসহ উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায়। আবার কেউ এ অঞ্চলে লেখাপড়া করে জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে।

আসাদুজ্জামান খান বলেন, জঙ্গিদের খুঁজে বের করার জন্য অ্যান্টি টেররিজম গ্রুপ তাদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনতে কাজ করছে। আমরা অনেক দূর অগ্রসর হয়েছি। জঙ্গি দমন হবেই।  তিনি আরো বলেন, দেশে জঙ্গি নির্মূল হয়নি তবে জঙ্গি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। জঙ্গি নির্মূলে আমরা জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছি।

দেশে আইএসের অস্তিত্ব নেই দাবি করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের অনেক দেশে জঙ্গি তৎপরতা রয়েছে। সেসব দেশে বড় বড় অঘটন ঘটছে। কিন্তু আমাদের দেশের মানুষ শান্তিপ্রিয়। তারা জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার এবং ঐক্যবদ্ধ। যে কারণে দেশে জঙ্গিবাদ এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। জঙ্গিরা সহজে মাথাচাড়া দিতে পারবে না।

তিনি বলেন, দেশে কয়েকটি জঙ্গি হামলার সঙ্গে যারা জড়িত তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জঙ্গি ও সন্ত্রাসীরা কেউ রেহাই পাবে না।

রংপুর জেলা প্রশাসন সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি টিপু মুনশি। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শামসুল হক টুকু, ওমর ফারুখ চৌধুরী, আবুল কালাম আজাদ, ফখরুল ইমাম, বেগম কামরুন নাহার চৌধুরী, পুলিশ মহাপরিদর্শক একেএম শহীদুল হক, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ, বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন, আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর অতিরিক্ত মহাপরিচালক মো. নুরুল আলম, স্বরাষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মুনিম হাসান।

সম্পাদান : অরুন দাস।

Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterPrint this page