`আমাদের কাজ ধারাবাহিকতা ধরে রাখা’

ক্রীড়া প্রতিবেদক, পিটিবিনিউজবিডি.কম

0
বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা
বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা

পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো ক্রিকেট পরাশক্তির বিপক্ষে সিরিজ জিতেছে টাইগাররা। এবার সামনে ইংল্যান্ড। নিজের উত্থান ও শক্তিমত্তা দেখিয়ে দেবার দারুণ সুযোগ সামনে। কিন্তু এ বিষয়টি আমলে নিচ্ছেন না  বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘কাউকে সামর্থ্য দেখানোর জন্য আমাদের কেউ খেলে না। আমরা এখন প্রতিটি সিরিজে ভালো খেলছি। এখন আমাদের কাজ  ধারাবাহিকতা ধরে রাখা।

টাইগার অধিনায়ক বলেন, আমাদের কাছে প্রতিটি সিরিজই গুরুত্বপূর্ণ। সেদিক থেকে আলাদা করে দেখছি না এই সিরিজ। কেউই দেখছে না। আরেকটি নতুন সিরিজ, সবাই খুব রোমাঞ্চিত। আমরা যদি ভালো খেলি, সিরিজ জিততে পারি, তাহলে ভালো লাগবে।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের ফেভারিট ভাবেন না মাশরাফি। কিন্তু সর্বশেষ ৫ ম্যাচে অবশ্য এগিয়ে বাংলাদেশই! ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ ৫ ম্যাচের ৩টিতেই জিতেছে মাশরাফিরা। সর্বশেষ গতবছর ওয়ানডে বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অ্যাডিলেডে টাইগাররা জিতেছিলো ১৫ রানে। এই পরিসংখ্যান বাদ দিলেও সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানেও  বাংলাদেশ সমান সমান। ২০১৫ থেকে এখন পর্যন্ত তারা খেলেছে ৪১টি ম্যাচ। যার মধ্যে জয় ২১টি ম্যাচে। অন্যদিকে বাংলাদেশ খেলেছে ২১ ম্যাচ, যার ১৫টিতে জিতেছে টাইগাররা। এছাড়া ঘরের মাঠে টানা ৬টি সিরিজ জয়ের পর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পুরো আত্মবিশ্বাস নিয়েই নামছে বাংলাদেশ।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে কী হয়েছে কিংবা নিজেরা কী করেছেন সেগুলো নিয়ে একদমই ভাবছেন না মাশরাফি। নতুন সিরিজ, নতুন সম্ভাবনা-এইসব কিছুই এখন মাশরাফির ভাবনাতে, ‘নতুন সিরিজ, এখান নতুন শুরুর চিন্তাই করি। সাম্প্রতিক সময়ের কথা ধরলে আমরা বিশ্বের সেরা দলগুলির একটির সঙ্গে খেলতে যাচ্ছি। ভারত, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড সেরার মধ্যে আছে। কাজটা সহজ হবে না। তবে আমরা আত্মবিশ্বাসী। গত দেড় দুই বছর বা দেড় দুই মাস যে কাজগুলো করেছি, সেগুলোর দিকে ফোকাস করতে হবে আমাদের। চাপ না নিয়ে খেলতে পারলে ভালো ফল সম্ভব।

বাংলাদেশের সঙ্গে ইংল্যান্ড সর্বশেষ দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ খেলেছিলো ২০১০ সালে নিজ দেশেই। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশ হেরেছিল ২-১  ব্যবধানে। প্রায় সাড়ে ৬ বছর আবারও দ্বি-পাক্ষিক সিরিজে মুখোমুখি হচ্ছে দুইদল। বড় দলের বিপক্ষে বাংলাদেশ এখনো নিয়মিত খেলার সুযোগ পায় না। এখানে ইংল্যান্ডকে নিজেদের সামর্থ্য দেখানোর সুযোগ কিনা জানতে চাইলে মাশরাফি বলেছেন, আমি বিশ্বাস করি, কাউকে সামর্থ্য দেখানোর জন্য আমাদের কেউ খেলে না। তবে আমাদের প্রতিটি সিরিজ থেকে আমাদের অবস্থান ও পারিপার্শ্বিকতা যদি চিন্তা করেন, তাহলে বলবো আমরা এখন ভালো খেলছি। আমাদের কাজ এর ধারাবাহিকতা ধরে রাখা। আমাদের কাছে প্রতিটি সিরিজই গুরুত্বপূর্ণ। সেদিক থেকে আলাদা করে দেখছি না এই সিরিজ।

তিনি আরো যোগ করেন, আমি নিশ্চিত কেউই দেখছে না। আরো একটি নতুন সিরিজ, সবাই খুব রোমাঞ্চিত। আমরা যদি ভালো খেলি, সিরিজ জিততে পারি, তাহলে ভালো লাগবে। কিন্তু নিজেদের প্রমাণ করার কিছু নেই।

উল্লেখ্য, আগামী শুক্রবার থেকে মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে ইংল্যান্ডের মোকাবেলা করবে বাংলাদেশ। এরপর ৯ অক্টোবর একই মাঠে দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলার পর ১২ অক্টোবর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে দল দু’টি।

সম্পাদনা: এম জাফিউল ইসলাম।

Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterPrint this page